22.7 C
Toronto
বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০২২

বছরে গড়ে ২ হাজার ২০০ কোটি ডলার রাজস্ব হারাচ্ছে কানাডা

- Advertisement -
সিআরএ বলছে, এই পাঁচ বছরে মোট রাজস্ব, যা সরকারের পাওনা রয়েছে অর্থাৎ আহরণ করা হয় তার মোট পরিমাণ ১ লাখ ১১ হাজার ২০০ কোটি ডলার

অপরিশোধিত করের কারণে বছরে গড়ে ২ হাজার ২০০ কোটি ডলার রাজস্ব হারাচ্ছে কানাডা। কানাডা রেভিনিউ এজেন্সির (সিআরএ) নতুন এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। ২০১৪ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত কর সংগ্রহের তথ্য বিশ্লেষণ করেছে এজেন্সি। এটাই এ ধরনের প্রথম প্রতিবেদন, যা মঙ্গলবার প্রকাশ করা হয়।

সিআরএ বলছে, এই পাঁচ বছরে মোট রাজস্ব, যা সরকারের পাওনা রয়েছে অর্থাৎ আহরণ করা হয় তার মোট পরিমাণ ১ লাখ ১১ হাজার ২০০ কোটি ডলার। যদিও অনাদায়ী রাজস্বের পরিমাণ প্রতি বছরই বাড়ছে এবং ২০১৮ সালে তা ২ হাজার ৩৪০ ডলারে উন্নীত হয়েছে। ২০১৭ সালে এর পরিমাণ ছিল ২ হাজার ৩৫০ কোটি ডলার, যা ফেডারেল কর রাজস্বের ৯ শতাংশ।

এর মধ্যে ব্যক্তি খাতের করের পরিমাণ বার্ষিক ৮৪০ থেকে ১ হাজার ৬০ কোটি ডলার, যা ব্যক্তিখাতে বার্র্ষিক মোট আয়করের ৫ থেকে ৭ শতাংশ। এই পরিমাণের মধ্যে আছে অপরিশোধিত কর, লুকিয়ে রাখা অফশোর আয় এবং আন্ডারগ্রাউন্ড অর্থনীতি সম্পর্কিত।

অনাদায়ী করপোরেট কর রাজস্বের পরিমাণ বার্ষিক ৪৬০ কোটি থেকে ৭৩০ কোটি ডলার, এই শ্রেণির মোট রাজস্বের ০ থেকে ১৭ শতাংশ। অভিন্ন বিক্রয় কর বাবদ প্রত্যাশিত রাজস্বের ৮ থেকে ০ শতাংশও অনাদায়ী থাকছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, যার বার্ষিক পরিমাণ গড়ে ৩৯০ কোটি ডলার।
এছাড়া আবগারি শুল্ক অনাদায়ী থাকছে বার্ষিক ৪০ থেকে ৫০ কোটি ডলার। অবৈধ সিগারেট উৎপাদনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এটি।

সিআরএ বলছে, আইন পরিপালনে জোরারোপ ও সংগ্রহের উদ্যোগে গুরুত্ব দেওয়ায় পাঁচ বছরে বাড়তি ৭ হাজার ২৪০ কোটি ডলার রাজস্ব যোগ হয়েছে। তা না হলে এটা অনাদায়ীই থেকে যেতো। বিপুল পরিমাণ অনাদায়ী থাকায় সার্বিক অর্থনীতির ওপর এর প্রভাব পড়ছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles