27.8 C
Toronto
শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪

শূকরের হৃদপিণ্ড নেয়া সেই ব্যক্তি মারা গেছেন

শূকরের হৃদপিণ্ড নেয়া সেই ব্যক্তি মারা গেছেন - the Bengali Times
ছবি সংগৃহীত

বিশ্বের প্রথম ব্যক্তি হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের একজন রোগীর শরীরে শূকরের হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপন করা হয়। ওই ব্যক্তির মৃত্য হয়েছে। ইউরো নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মঙ্গলবার (৮ মার্চ) ৫৭ বছর বয়সী ডেভিড বেনেট ইউনিভার্সিটি অফ মেরিল্যান্ড মেডিকেল সেন্টারে মারা গেছেন। তবে ঠিক কি কারণে তিনি মারা গেছে এর কারণ জানাননি চিকিৎসকেরা। চিকিৎসকেরা শুধু জানান, বেশ কয়েকদিন আগে থেকে ডেভিড বেনেটের অবস্থা খারাপ হতে শুরু করেছিল।

ইতিহাসে প্রথমবারের মতো মানবদেহে শূকরের হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপন করে দৃষ্টান্ত গড়ে যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডের চিকিৎসকরা। ৫৭ বছর বয়সী মেরিল্যান্ডের এক ব্যক্তির শরীরে সম্প্রতি প্রতিস্থাপন করা হয় শূকরের হৃদপিণ্ড। অস্ত্রপচারের পর বেশ সুস্থই ছিলেন সেই ব্যক্তি। তবে অস্ত্রপচারের আগে শূকরটির জিনগত কিছু পরিবর্তন করা হয়।

- Advertisement -

যুক্তরাষ্ট্রের বাল্টিমোরের ইউনিভার্সিটি অব মেরিল্যান্ড মেডিকেল স্কুলের বিবৃতিতে জানানো হয়, শূকরের হৃদপিণ্ড যার শরীরে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে, তিনি দীর্ঘদিন ধরে হৃদযন্ত্রের জটিলতায় ভুগছিলেন। গত তিনবছর শয্যাশায়ী ছিলেন তিনি। তার শারীরিক অবস্থা এতোটাই নাজুক ছিল যে মানুষের হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপনের ধকল তিনি সহ্য করতে পারতেন না। তাই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

অপারেশন শেষে সেই ব্যক্তি জানান, এই অস্ত্রপচারে রাজি হওয়া তার কাছে ছিল অন্ধকারে ঢিল ছোড়ার মতো। বিছানায় পড়ে থেকে মৃত্যুর জন্য অপেক্ষা করার বদলে এই সিদ্ধান্ত নেয়াই ঠিক ছিল বলে মনে করেন তিনি।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles