19.2 C
Toronto
মঙ্গলবার, আগস্ট ৯, ২০২২

মহামারির মধ্যে দাঁতের সমস্যা বেড়েছে

- Advertisement -
কানাডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশন বলছে, দাঁতের চিকিৎসায় বিলম্বও স্বাস্থ্য সমস্যা ডেকে আনতে পারে

দাঁতে ফাঁটল, ভাঙা ও ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার ঘটনা গত ২০ মাসে বেড়েছে বলে জানিয়েছেন দন্ত চিকিৎসকরা। কোভিড-১৯ মহামারি সংশ্লিষ্ট চাপ ও উদ্বেগ থেকেই দাঁতের সমস্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

ভ্যানকুভার এলাকার দন্ত চিকিৎসক ব্রুস ওয়ার্ড বলেন, মহামারির চাপ থেকে লোকজন চোয়ালের সংকোচন ঘটিয়েছেন বেশি। এর ফলে ঘুমের মধ্যে অতিরিক্ত চাপ পড়ে দাঁত ভেঙে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এটা অনেকটা দুটি হাতির দাঁতের মধ্যে ঘর্ষণ লাগার মতো।

সকালে চোয়াল ব্যথা, মাথা ব্যথা ও দাঁত ব্যথা এর লক্ষণ। অনেক সময় সময় এটা বেশ খারাপ পর্যায়ে চয়ে যায় বলে জানান ওয়ার্ড। তিনি বলেন, সম্প্রতি আমি দুটি দাঁত তুলেছি, যেগুলো মাঝখান থেকে ভেঙে গিয়েছিল।

ব্রিটিশ কলাম্বিয়া ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক এই প্রেসিডেন্ট বলেন, সম্প্রতি দাঁত ভাঙার অনেক বেশি চিকিৎসা করছেন তাদের সঙ্গে একটি জুম মিটিংয়ে আমি অংশ নিয়েছিলাম। বিশেষ করে গত দেড় বছরে এ ধরনের ঘটনা ব্যাপক বেড়েছে।

দাঁত ভাঙা ও চোয়াল কোচকানো চাপের সঙ্গে সম্পর্কিত এবং মহামারির সময় চাপ অনেক বেড়েছে। দাঁতের সুরক্ষায় চিকিৎসকরা বিশেষ ধরনের মাউথপিস ব্যবহারের পাশাপাশি জীবনযাপনে চাপ কমানোর পরামর্শ দিয়েছেন। ওয়ার্ড বলেন, অনেকেই আমাকে বলেছেন, কিভাবে তারা এটা বন্ধ করবেন। আমি বলেছি, ফিজিতে চলে যান। আপনার কাছে যা কিছু আছে বেচে দিন এবং সারাদিন সৈকতে গা এলিয়ে শুয়ে থাকুন।

মাদকাসক্তি ও মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শক ভ্যানকুভারের নির্মলা রানিগা বলেন, মহামারি জনগণের চাপ বাড়িয়ে দিয়েছে। নানাভাবে এর প্রভাব পড়ছে। মুখ এর মধ্যে অন্যতম। মানসিক চাপ মুখের সমস্যা ডেকে আনতে পারে। এর ফলে রাতের বেলা আপনি ্েচায়াল কোঁচকাতে পারেন, যা আপনার মাথাব্যথা ও মাইগ্রেনের সমস্যা তৈরি করতে পারে। এটা আপনার দাঁত ও ফিলিংয়ে ফাটল ধরাতে পারে। রাতে দাঁতে দাঁত ঘষা ও চোয়াল কোঁচকানো এবং ঘুমের মধ্যে কথা বলা মানসিক সমস্যার ইঙ্গিত। এটা চাপ কমানোর একটা উপায়। দাঁতের দাঁত ঘষার মধ্য দিয়ে আপনার শরীর চাপ থেকে বেরিয়ে আসে। এখন প্রশ্ন হলো আপনি কিভাবে ্মানসিক চাপ থেকে বেরিয়ে আসবেন সেটি।

কানাডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশন বলছে, দাঁতের চিকিৎসায় বিলম্বও স্বাস্থ্য সমস্যা ডেকে আনতে পারে। অ্যাসোসিয়েশনের ডেপুটি প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. অ্যারন বারি বলেন, মহামারি অনেকের জীবনকেই ক্ষতিগ্রস্থ করেছে। এটা ব্যক্তির ভালো অভ্যাস ও প্রাত্যহিক কর্মকা-গুলো এলোমেলো করে দিয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles