তাজা সবজি শরীর সুস্থ ও নীরোগ রাখার চাবিকাঠি
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
সবজি মানেই স্বাস্থ্য। আর কিছু সবজিতে তো রীতিমতো ম্যাজিক। সবজি যত রঙিন, ততই কামাল। লাল-নীল-সবুজ-হলুদ। বাজার ঢুঁড়ে বেছে নিন রঙিন সবজি। আর দেখুন ম্যাজিক।

শীতের বাজার মানেই লাল, নীল, সবুজের পসরা। সবজি বাজারে রঙের ছড়াছড়ি। বিট হোক বা গাজর, ব্রকোলি হোক বা টমেটো, খেলেই ম্যাজিক। ধোঁয়া ওঠা গরম ভাতের সঙ্গে তাজা সবজি। শরীর সুস্থ ও নীরোগ রাখার চাবিকাঠি।

গাজরে রয়েছে ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, ভিটামিন কে, মিনারেল ও প্রচুর ফাইবার। সর্বগুণে গুণান্বিত সবজি। চোখের সুরক্ষায় গাজর। রাতকানা রোগ দূরে রাখে। লিভার সুস্থ রাখে গাজর। প্রতিদিন একটি করে গাজর মাড়ি ও দাঁতের সমস্যা দূর করে। ফুসফুস, স্তন ও কোলন ক্যানসার প্রতিরোধ করে। গাজরের বিটা ক্যারোটিন মুখের বয়সজনিত দাগ ও রিঙ্কেল দূর করে। গবেষকদের দাবি, সপ্তাহে ৬টি গাজর চেহারায় বয়সের ছাপ দূর করে।

বিটে শর্করা থাকে প্রচুর। রক্ত থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয় বিট। সাহায্য করে লিভার ঠিক রাখতে। নিয়মিত বিটের রস খেলে বাড়বে রক্তের লৌহকণিকা। বাড়ানো যায় শক্তি ও অক্সিজেন চলাচল। বিটে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। স্টোকের ঝুঁকি কমে ও হৃদযন্ত্র ভাল থাকে। ব্লাডপ্রেশার নিয়ন্ত্রণে রাখে। বিটে প্রচুর পরিমাণে রয়েছে ফাইবার ও ভিটামিন সি। চুল ও নখের জন্য বিশেষ উপকারি বিট।

গাঢ় বেগুনি হৃষ্টপুষ্ট বেগুনে রয়েছে ভিটামিন এ, বি, সি, শর্করা, আয়রন। ব্রেন স্ট্রোক, মস্তিষ্কের রক্তক্ষয়জনিত রোগ দূর করে। মস্তিষ্কের রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা ও সরবরাহ বৃদ্ধি করে। টিউমারের জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করে বেগুন। হাড় শক্তিশালী করে, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। তবে অ্যালার্জির সমস্যা  থাকলে বেগুন না খাওয়াই ভাল।

টমেটোতে রয়েছে ভিটামিন সি, এ, কে, ফলিক অ্যাসিড লাইকোপিন, ক্রোমিয়াম। কোলেস্টেরলের মাত্রা ও রক্তচাপ কমায় এটি। নিয়মিত টমেটো খেলে হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে। ডায়াবেটিসের জন্যও টমটো উপকারি। ভিটামিন কে মজবুত হাড় গঠনে সাহায্য করে। কিডনিকে সুস্থ রাখে টমেটো। পাকস্থলী, কোলেস্টেরল, প্রস্টেট ক্যানসার প্রতিরোধ করে। ত্বক ও চুলকে পুষ্টি জোগায়।

সবুজ ফুলকপিতে রয়েছে প্রচুর আয়রন ও ক্যালসিয়াম। চোখের রোগ, রাতকানা প্রতিরোধ করে। হাড়কে সুস্থ রাখে। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

আয়রনে ভরপুর মোচা। ক্যালসিয়াম, আয়োডিন, ম্যাগনেশিয়ামের পরিমাণও রয়েছে যথেষ্ট। ত্বক, চুল ভাল রাখে মোচা। দাঁতের গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়। মোচায় রয়েছে প্রচুর ভিটামিন এ। রাতকানা রোগে মোচা খুব উপকারি। যাঁরা শারীরিক পরিশ্রম বেশি করেন, তাঁদের জন্য এই সবজি ভীষণ উপকারি।

শুধু এই রঙিন সবজিই নয়, টাটকা সবুজ শাক-সবজিও পুষ্টিগুণে ভরপুর। সুস্থ ও নীরোগ থাকতে তাই নিয়ম করে খেতেই হবে প্রচুর শাক-সবজি।

২৭ ডিসেম্বর, ২০১৬ ১৬:১২:৫৮