-8.2 C
Toronto
সোমবার, জানুয়ারী ২৪, ২০২২

গৃহবধূ ও রাজমিস্ত্রির প্রেম কি অপরাধ? প্রশ্ন রেখে যা বললেন ‘জুন আন্টি’

- Advertisement -
‘জুন আন্টি’ খ্যাত ওপার বাংলার অভিনেত্রী ঊষসী চক্রবর্তী (ফাইল ছবি)

পশ্চিমবঙ্গের বালির নিশ্চিন্দায় রাজমিস্ত্রি প্রেমিকদের হাত ধরে দুই গৃহবধূর ঘর ছাড়ার ঘটনা নিয়ে এবার বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন ‘জুন আন্টি’ খ্যাত ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঊষসী চক্রবর্তী। তিনি উল্টো প্রশ্ন তুলেছেন, গৃহবধূ ও রাজমিস্ত্রির প্রেম কি শাস্তিযোগ্য অপরাধ কিনা। যদিও এই অভিনেত্রীর এমন প্রশ্ন ভালোভাবে নেয়নি নেটিজেনরা, পাল্টা কটাক্ষোর শিকার হয়েছেন।

ঊষসী নিজের ফেসবুক পেইজে লিখেছেন, ‘কদিন ধরে দেখে শুনে মনে হচ্ছে বাড়ির বউ প্রেম করে পালিয়ে যাওয়া থেকে আর বড় কোনও ক্রাইম আশে পাশে ঘটেনি। আর আমার আইনের জ্ঞান এত তীব্র নয় কিন্তু একটা কথা বুঝতে পারছি না দুজন consenting adult (প্রাপ্তবয়স্ক) প্রেম করেছেন একজন তার মধ্যে বিবাহিত। তারপর তারা পারস্পরিক সম্মতিতে গৃহত্যাগ করেছেন। এটা কি কোনও শাস্তি যোগ্য অপরাধ? নাকি গরিব রাজমিস্ত্রী বলেই আমাদের মধ্যবিত্ত আত্মসম্মানে বেশি ঘা লেগেছে বড়লোক হলে ওটা ওদের private matter বলে এড়িয়ে যেতাম। মানে মোদ্দা কথা আমি ব্যাপারটা ঠিক বুঝতে পারছি না। আপনারা বুঝলে জানান…’

- Advertisement -

সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা সময়, নানা বিষয় নিয়ে মুখ খুলতে দেখা যায় ঊষসীকে। কোনও ভনিতা ছাড়াই আপত্তিজনক ঘটনার তীব্র বিরোধিতাও করতে দেখা যায় তাকে। ধারাবাহিকে যতই ঊষসী খলচরিত্র ‘জুন আন্টি’ হয়ে তীব্র কটাক্ষের শিকার হন না কেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনরা কিন্তু বরাবরই নানা বিষয়ে ঊষসীকে সমর্থন করেন।
সেই সমর্থনের কথা মাথায় রেখেই ঊষসী গৃহবধূ ও রাজমিস্ত্রির খবর নিয়ে পোস্ট করে নেটিজেনদের মতামত চাইলেন। তবে এবারটি নেটিজেনদের অধিকাংশই এমন পোস্ট করায় কটাক্ষ করলেন অভিনেত্রীকে। তার কমেন্ট বক্সে নেটিজেনদের অনেকেই বিরুপ মন্তব্য ছুঁড়ে দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৫ ডিসেম্বর শীতের পোশাক কিনতে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন বালির নিশ্চিন্দার বাসিন্দা অনন্যা কর্মকার, তার জা রিয়া কর্মকার এবং রিয়ার সাত বছরের ছেলে আয়ুষ। জানা গেছে, অনন্যার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে রাজমিস্ত্রি শেখর রায়ের। তার জা রিয়া বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়ান রাজমিস্ত্রি শুভজিৎ দাসের সঙ্গে। কিন্তু কেন? সে কথা পুলিশকে জানিয়েছেন অনন্যা এবং রিয়া।

অনন্যা পুলিশকে জানিয়েছেন, আট বছর বিয়ে হলেও সন্তান হয়নি তার। কাজে ব্যস্ত স্বামী বেশি সময়ও দিতে পারতেন না তাকে। সব মিলিয়ে সংসার জীবনে একঘেয়েমি গ্রাস করেছিল। একই সমস্যা তার জা রিয়ারও। ১০ আগে বিয়ে হওয়া রিয়ার ৭ বছরের একটি ছেলে রয়েছে। কিন্তু স্বামী সময় দিতে না পারাতেই বিরক্তি তৈরি হয়েছিল তার মনেও।

এরকম অবস্থাতে রাজমিস্ত্রি শেখর এবং শুভজিতের সঙ্গে আলাপ হয় তাদের। শেখর এবং শুভজিৎ দু’জনেই মিষ্টভাষী ছিলেন। দুই রাজমিস্ত্রি সহজে সকলের সঙ্গে মিশতে পারতেন বলে পুলিশে জানিয়েছেন অনন্যা এবং রিয়া। এই গুণের জন্য দুই রাজমিস্ত্রি অল্প সময়ে মন জয় করে নেন কর্মকার পরিবারের গৃহবধূদের। ক্রমে তাদের আলাপ গাঢ় হয়। এরপরই তারা বাড়ি ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles