21.7 C
Toronto
মঙ্গলবার, আগস্ট ৯, ২০২২

উদ্দেশ্য বিনামূল্যে খাওয়া আর পাঁচতারায় থাকা! নকল বাগদানের খবর রটিয়ে ভাইরাল যুবক-যুবতী

- Advertisement -

 

ছবি: সংগৃহীত

বিয়ে বা আশীর্বাদ আমাদের দেশে এই শব্দগুলির গুরুত্বই আলাদা। সম্পর্কের দু’দিকে থাকা মানুষগুলো জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত এই দায়িত্ব পালন করে চলেন। তবে অনেকেই আছেন, যাদের কাছে এগুলো সম্পূর্ণ অর্থহীন। ছোট্ট ও সস্তার সুযোগের জন্যও এই ধরনের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়কে ব্যবহার করতে পিছপা হন না তারা। সম্প্রতি এমনই এক কাণ্ড ঘটালেন এক ব্রিটিশ যুগল। নিজেদের সুবিধার জন্য মিথ্যা এনগেজমেন্টের প্রস্তুতি নিলেন তারা। খবর নিউজ এইটিনের।

খবরে বলা হয়, হ্যারি কলিনস ও রিয়ান স্মিথ লন্ডনের অন্যতম দামি হোটেল, হোটেল শার্ডে পৌঁছেন সম্প্রতি। তারপর নিজেদের ইচ্ছে চরিতার্থ করার জন্য যা করে বসেন তা সত্যিই অদ্ভুত। লিভারপুলের বাসিন্দা এই যুগল হোটেলে যাওয়ার পূর্বেই একটা নিখুঁত ছক কষেন। বিষয়টিকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রকাশ্যে আনারও পুরো ব্যবস্থা করেন। এরপর পৌঁছে যান হোটেলে। এই হোটেলে এক রাত থাকার খরচ আট হাজার থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত। হোটেলের পৌঁছানোর পর এই যুগল নিজেদের এনগেজমেন্টের নাটক শুরু করেন। আর সেই নাটককে নিখুঁত রূপ দিতে রিয়ান নিজের আঙুলে তার মায়ের এনগেজমেন্ট রিং পরে নেন। বিষয়টিকে আরও বিশ্বাসযোগ্য করে তোলার জন্য নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়ায় এনগেজমেন্টের ছবিও পোস্ট করেন তারা।

এই নকল এনগেজমেন্টের সূত্র ধরেই হোটেলে আপগ্রেডেড রুম পেয়ে যান তারা, সঙ্গে পান শুভেচ্ছা-সহ ডেসার্টও। এই সমস্ত কিছুর ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। শেষমেশ নিজেদের পরিকল্পনার কথাও সোশ্যাল মিডিয়াতেই খোলসা করেছেন তারা।

মুহূর্তেই রিয়ান-হ্যারির পোস্ট টুইটারে ভাইরাল হয়ে যায়। তাদের এই পোস্টে ৭ হাজার ৭৭১টি লাইকের পাশাপাশি এটি শতাধিক মানুষ রিট্যুইট করেন। কেউ তাদের এই কাণ্ডকারখানার প্রশংসা করেন, মজার ছলে নানা প্রতিক্রিয়া দেন। কেউ আবার একে অত্যন্ত নিম্নমানের বলে সমালোচনা করেন। এদের মধ্যেই এক ইউজার এই ট্যুইটটিকে সংশ্লিষ্ট হোটেলের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টেও ট্যাগ করে দেন এবং যাতে এই যুগলকে দ্রুত এই হোটেল থেকে বের করে দেয়া হয় তার আবেদনও জানান তিনি।

আপাতত নকল এনগেজমেন্ট ও হোটেলে এইভাবে প্রবেশের ঘটনায় নেট দুনিয়ায় ভাইরাল এই যুগল। তবে তাদের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষের তরফে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে কি না তা এখনও জানা যায়নি।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles