-4.6 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২৭, ২০২২

বর্তমান সরকার অসংখ্য মানুষকে খুন করেছে : ফখরুল

- Advertisement -

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমরা আশা করছি জনগণ আবার মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জেগে উঠবে। দানবীয়, স্বৈরাচারী, কর্তৃত্ববাদী সরকারকে সরিয়ে তারা জনগণের প্রতিনিধিত্বকারী সরকার, জনগণের পার্লামেন্ট, মুক্ত রাষ্ট্র এবং সত্যিকার অর্থে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করবে।’

আজ মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

- Advertisement -

মির্জা ফখরুল বলেন, জাতিকে মেধাশূন্য করতে এই দিন পাক হানাদার বাহিনী আমাদের চিকিৎসক, শিক্ষক, সাংবাদিক, প্রকৌশলীসহ মেধাবী বুদ্ধিজীবীদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছে। দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধকালীন সময়ে লাখ লাখ মানুষকে হত্যা করেছে। এই দিনে আমরা শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। এবং আমরা আশা করছি জনগণ আবার মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জেগে উঠবে এবং দানবীয়-স্বৈরাচারী-কর্তৃত্ববাদী সরকারকে সরিয়ে জনগণের সরকার, একটা মুক্ত রাষ্ট্র এবং সত্যিকার অর্থে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করবে।

তিনি বলেন, আমরা ৫০ বছর পূর্তি করতে চলেছি এই বছরে। কিন্তু দুর্ভাগ্যের কথা ১৯৭১ সালে যে লক্ষ্য নিয়ে আমরা স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু করেছিলাম, অগণিত শহীদ প্রাণ দিয়েছে, বুদ্ধিজীবীরা প্রাণ দিয়েছেন, সে লক্ষ্য গণতান্ত্রিক একটা রাষ্ট্র এখন পর্যন্ত পাইনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকার অসংখ্য মানুষকে খুন করেছে, গুম করেছে। সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে তারা আজকে এদেশের স্বাধীনতার সময় প্রথম নারী মুক্তিযোদ্ধা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রেখেছেন। কয়েক বছর ধরে মিথ্যা আর সাজানো মামলায় আটক করে রাখা হয়েছে। এখন এই মুহূর্তে তিনি অসুস্থ হয়ে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন। আমরা বারবার বলেছি, তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করার জন্য। কিন্তু এই গণবিরোধী সরকার, স্বাধীনতাবিরোধী সরকার দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে শুধু নয়, কাউকেই তারা এখানে রাজনীতি করতে দিতে চায় না। এদেশে তারা বিরাজনীতিকরণের প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles