21.5 C
Toronto
মঙ্গলবার, আগস্ট ৯, ২০২২

কোয়ারেন্টিনে থেকে স্ত্রীকে খুন করে পালিয়েছে স্বামী

- Advertisement -
ফাইল ছবি

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড পৌর সদরের একটি ভাড়া বাসা থেকে লাকি আক্তার (৩২) নামের এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে। পরে মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

লাকি আক্তার উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা সৌদি আরব প্রবাসী আবদুল মান্নানের দ্বিতীয় স্ত্রী। লাকির স্বজনরা জানিয়েছেন, মান্নান কয়েক দিন আগে সৌদি আরব থেকে দেশে এসেছেন। পরে গতকাল বুধবার তিনি স্ত্রী লাকি আক্তারের বাসায় এসে তাকে খুন করে পালিয়েছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই নারীর মরদেহ ভাড়া বাসার খাটের ওপর শোয়ানো অবস্থায় ছিল। লাশের গায়ে কম্বল ও গলায় ওড়না পেঁচানো ছিল।

লাকির ভাই মুজিবুল হক বলেন, লাকির স্বামী মান্নান তার প্রথম স্ত্রীকে রাখেন মুরাদপুরের বাড়িতে। আর লাকিকে রাখেন পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের একটি ভাড়া বাসায়। তাদের বাড়ি মিরসরাই উপজেলায়। বৃহস্পতিবার সকালে তার বোন লাকির মৃত্যুর খবর পেয়ে ছুটে আসেন সীতাকুণ্ডে। মান্নানই তার বোনকে খুন করেছেন বলে দাবি করেন তিনি।

মুজিবুল হক আরও বলেন, মান্নান সৌদি আরব থেকে তিন-চার দিন আগে দেশে ফিরে কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। গতকাল সন্ধ্যায় তিনি লাকির বাসায় যান। বিষয়টি লাকি তার আরেক বোনকে মুঠোফোনে জানিয়ে ছিলেন।

সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, পাশের বাসার বাসিন্দারা লাকির ঘরের দরজা খোলা দেখতে পান। সেখানে দেখেন লাকির মরদেহ খাটের ওপর পড়ে আছে। পরে প্রতিবেশীরা লাকির পরিবার ও পুলিশকে খবর দেয়।

এর আগে গতকাল সন্ধ্যায় লাকির সঙ্গে এক ব্যক্তিকে ওই বাসায় ঢুকতে দেখেন প্রতিবেশীরা। কিন্তু মান্নানকে প্রতিবেশীরা আগে দেখেননি। ফলে লাকির সঙ্গে ঘরে প্রবেশ করা ব্যক্তি মান্নান কি না, তা নিশ্চিত নন। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা করা হবে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles