4.6 C
Toronto
সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২

সরকার তো খালেদা জিয়াকে গলা টিপে মারছে না : ওবায়দুল কাদের

সরকার তো খালেদা জিয়াকে গলা টিপে মারছে না : ওবায়দুল কাদের - the Bengali Times
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি যতটা তৎপর, তার চেয়ে বেশি রাজনীতি করেছে তারা। মানবিক দিক বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী তাকে বাসায় থেকে চিকিৎসার সুযোগ দিয়েছেন।

খালেদা জিয়ার মৃত্যু হলে তার দায় সরকারকে নিতে হবে, বিএনপি নেতাদের এমন মন্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, হায়াত-মউত আল্লাহর হাতে। তবু চিকিৎসা করাতে হবে।

- Advertisement -

সেতুমন্ত্রী বলেন, সরকার তো খালেদা জিয়াকে গলা টিপে মারছে না। মরে গেলে দায় সরকারকে নেবে, এটা তো ঠিক না। অসুস্থ হয়ে তো মানুষ মারা যায়। তাই বলে কথায় কথায় সরকারকে দোষ দেবেন এটা ঠিক না।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষার্থীদের বাস ভাড়া কমানোর আন্দোলন প্রসঙ্গে কাদের বলেন, অনেক দেশেই শিক্ষার্থীরা বাস ভাড়ায় সুযোগ পেয়ে থাকে।

তাদের হাফ ভাড়ার দাবিতে আন্দোলন নিয়ে আলোচনা চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শনিবার (২৭ নভেম্বর) এ বিষয়ে মালিক সমিতির নেতাদের সঙ্গে বৈঠক হবে। বিআরটিসির পক্ষ থেকে বাস ভাড়ায় শিক্ষার্থীদের সুবিধা দেওয়া হবে।

বেসরকারি বাসের ক্ষেত্রেও শিক্ষার্থীদের জন্য যৌক্তিক ভাড়া আদায়ের ব্যবস্থা করতে তিনি বাস-মালিক-শ্রমিকদের নির্দেশনা দেন।

সিটি কর্পোরেশনের গাড়িচাপায় নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাইমের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। বলেন, মেধাবী শিক্ষার্থীর এমন মৃত্যু মর্মান্তিক। তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসময় তিনি বলেন, গত দশ বছরে রোডস অ্যান্ড হাইওয়েতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে। পদ্মাসেতু, রাজধানীতে মেট্রোরেল, গাজীপুর থেকে বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট ও চট্টগ্রামে কর্ণফুলি টানেলের উদ্বোধন হবে আগামী বছর। পর্যায়ক্রমে দেশের দুই লেনের সড়কপথকে চার লেন ও ছয় লেনে উন্নীত করা হবে। এত উন্নয়ন সত্ত্বেও প্রতিদিনের দুর্ঘটনা ঘটছেই। পাখির মতো, মাছির মতো মানুষ মরছে।

মন্ত্রী হলেও এতে কষ্ট হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এত উন্নয়ন সত্ত্বেও সড়কপথে এখনও শৃঙ্খলা ফিরে আসেনি। শৃঙ্খলা না ফিরলে এত উন্নয়নের সুফল আসবে না।

তিনি বলেন, কেউ নিয়ম মানছে না। নসিমন-করিমন চলাচলকে দুর্ঘটনার কারণ বলে উল্লেখ করেন তিনি। বলেন, রাস্তায় মোটরসাইকেল এখন নতুন এক উপদ্রব।

তিনি আরও জানান, সড়ক পরিবহন সংক্রান্ত মূল আইনের কোনো পরিবর্তন করা হচ্ছে না। তবে, আইনটি সংশোধনের শেষ পর্যায়ে রয়েছে। আইনটি আগামী অধিবেশনে পাশ হবে। তবে, রাস্তার দুইপাশের অবৈধ স্থাপনা দখলমুক্ত করার লক্ষ্যে মহাসড়ক বিল আগামী ২৭ তারিখে সংসদে উত্থাপিত হবে ও পাশ হওয়ার কথা রয়েছে। নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা যাবে না। নির্দেশ না মানলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles