16.2 C
Toronto
রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪

হাইকোর্টের আদেশের পরও শো-রুম খুলতে না পারার অভিযোগ করলেন তনি

হাইকোর্টের আদেশের পরও শো-রুম খুলতে না পারার অভিযোগ করলেন তনি
রোবাইয়াত ফাতিমা তনি

ফেসবুক লাইভে এসে পণ্য বিক্রির সময় নানা বিতর্তিক প্রশ্নের উত্তর দিয়ে ও মন্তব্য করে আলোচিত-সমালোচিত উদ্যোক্তা রোবাইয়াত ফাতিমা তনির মালিকানাধীন ‘সানভীস বাই তনি’র গুলশানের শো-রুম খুলে দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে হাইকোর্টের আদেশের পরও শো-রুম খুলতে না পারার অভিযোগ করেছেন রোবাইয়াত ফাতিমা তনি।

আজ সোমবার রোবাইয়াত ফাতিমা তনির রিট পিটিশনের শুনানি শেষে বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি এস এম মাসুদ হোসাইন দোলনের বেঞ্চ তনির শো-রুম খুলে দেওয়ার আদেশ দেন।

- Advertisement -

রোবাইয়াত ফাতিমা তনি জানান, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক তা্র আইনজীবী সৈয়দ খালেকুজ্জামান অরুন তাকে অ্যাডভোকেট লেটার দেন। সেটি নিয়ে পুলিশ প্লাজায় তার বন্ধ থাকা দোকান খুলতে যান তিনি। তবে এর আগে ওই দোকানটি বন্ধ করে মার্কেট কমিটির হেফাজতে রাখেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জব্বার মন্ডল। তাই মার্কেট কমিটি দোকান খোলার জন্য এই সরকারি কর্মকর্তার নির্দেশনা চাইলে তিনি (জব্বার মন্ডল) তা আপাতত বন্ধ রাখার কথা জানান।

এ ব্যাপারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘হাইকোর্টের এমন কোনো নির্দেশনা আমাদের হাতে এসে পৌঁছায়নি। হাইকোর্টের কোনো আদেশ অমান্য করার প্রশ্নই ওঠে না।’

তিনি বলেন, ‘অধিদপ্তর যে কোনো ধরনের প্রতারণামূলক কার্যক্রম বন্ধ করতে সোচ্চার আছে এবং থাকবে। এর প্রভাব এরইমধ্যে আপনারা বাজারে দেখতে পাবেন। অনেক প্রতারণামূলক অনলাইন শপ এরইমধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে।’

আজ আদালতে তনির পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. খালেকুজ্জামান অরুণ। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সেলিম আজাদ ও আনিচ উল মাওয়া।

এর আগে গত ৬ জুন ‘সানভীস বাই তনি’র গুলশানের শো-রুম সিলগালা করা কেন অবৈধ হবে না, এই মর্মে জারি করা রুলের শুনানি শেষ হয়। একইসঙ্গে এ বিষয়ে আদেশের জন্য আজকের দিন ধার্য করা হয়। তার আগে ২৭ মে ‘সানভীস বাই তনি’র গুশনারের শো-রুম সিলগালা করা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

এর আগে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক ‘সানভীস বাই তনি’র গুলশানের শো-রুম সিলগালার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন রোবাইয়াত ফাতেমা তনি।

গত ১৪ মে ‘সানভীস বাই তনি’র গুলশান শাখায় অভিযান চালায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। পরে প্রতারণার অভিযোগে শো-রুমটি বন্ধ করে দেয় তারা।

ওই অভিযানের নেতৃত্ব দেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডল। পরে ভোক্তা অধিকার ও জব্বার মন্ডলের বিরুদ্ধে হয়রানি, মানহানি এবং ব্যবসা বন্ধ করে দিতে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তোলেন রোবাইয়াত ফাতিমা তনি, করেন হাইকোর্টে রিট।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles