নতুন বছরেই আইসিইউ অকুপেন্সি ২০০তে পৌঁছতে পারে

- Advertisement -
সায়েন্স টেবিলের সায়েন্টিফিক ডিরেক্টর ড. পিটার জুনি

অন্টারিওর অধিকাংশ জনস্বাস্থ্য ইউনিটেই কোভিড-১৯ এ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এ অবস্থায় নতুন বছরের শুরুতেই আইসিইউ অকুপেন্সি ২০০তে পৌঁছে যেতে পারে বলে উল্লেখ করা হয়েছে অন্টারিওর সায়েন্স টেবিলের মডেলিংয়ে।
অন্টারিওর ৩৪টি জনস্বাস্থ্য ইউনিটের মধ্যে ৮টিতেই ২৬ অক্টোবর থেকে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত কোভিড-১৯ এ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বেড়েছে সাডবারিতে। তবে সংক্রমণের সাম্প্রতিক এ উর্ধ্বমুখী প্রবণতা ভবিষ্যতে আক্রান্তের সংখ্যা কোথায় পৌঁছে দেবে সে পূর্বাভাস এখনই দেওয়া যাচ্ছে না।

সায়েন্স টেবিলের সায়েন্টিফিক ডিরেক্টর ড. পিটার জুনি শুক্রবার সিপি২৪কে বলেন, এই মহুর্তে যে অনিশ্চয়তা সেটি স্বীকার করে নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে আমি মমনে করি। আমরা একটা সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে আছি। আপনি যদি এর প্রমাণ চান তাহলে পশ্চিম ইউরোপে যান এবং সেখানে কি ঘটছে দেখুন।

- Advertisement -

প্রদেশজুড়ে ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণ মূলত ঠান্ডা আবহাওয়া ও জনগণের বাড়ির বাইরে বেশি সময় কাটানো। গত মাসে কিছু স্থানের ওপর থেকে ধারণক্ষমতার সীমা প্রত্যাহার ও ইনডোরে অধিক সংখ্যক মানুষের জমায়েতও এর অন্যকম কারণ। এ অবস্থায় কিছু কর্মকা- পুনরায় খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত আপাতত স্থগিত রাখার পরামর্শ দিয়েছে সায়েন্স টেবিল। সেই সঙ্গে ইনডোরে সঠিকভাবে মাস্ক পরিধান এবং ভ্যাকসিন গ্রহণের পরামর্শও দেওয়া হয়েছে।

জুনি বলেন, সংক্রমণ যাতে আকাশ ছোঁয়া না হয় সেজন্য প্রদেশের উচিত বিদ্যমান জনস্বাস্থ্য বিধিবিধানগুলো কঠোরভাবে মেনে চলা। টরন্টোতে আক্রান্তের সংখ্যা এখনও তুলনামূলক স্থিতিশীল রয়েছে। আমরা আশা করব ভবিষ্যতেও যাতে এ অবস্থা বিদ্যমান থাকে।

- Advertisement -

শুক্রবার এক উপস্থাপনায় সায়েন্স টেবিল বলেছে, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে পরীক্ষার হার তুলনামূলক কম রয়েছে এবং প্রদেশজুড়ে সংক্রমণের হার বাড়ছে। এটা সংক্রমণ বৃদ্ধির ইঙ্গিত।

- Advertisement -

অন্টারিওতে বর্তমানে সংক্রমণের হার দাঁড়িয়েছে ২ দশমিক ৫ শতাংশে। সপ্তাহখানে আগে এ হার ছিল ১ দশমিক ৮ শতাংশ। ৮ নভেম্বর রিপ্রোডাকশন নাম্বার ছিল ১ দশমিক ২৫, এক মাস আগের তুলনায় এটা বেশ উপরে। মাসখানেক আগে রিপ্রোডাক্টিভ নাম্বার ছিল ১।

প্রদেশের অধিকাংশ অঞ্চলে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও হাসপাতাল ও আইসিইউতে ভর্তি এখনও স্বাভাবিক রয়েছে। যদিও সামনের মাসগুলোতে আইসিইউতে ভর্তির হার বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সায়েন্স টেবিলের পূর্বাভাস অনুযায়ী, জানুয়ারিতে তা ২০০তে পৌঁছে যাবে। এক পর্যায়ে তা ২৫০এও পৌঁছে যেতে পারে।

শুক্রবার অন্টারিওর হাসপাতালগুলোতে ভর্তি ছিলেন ২০৭ জন কোভিড রোগীণ। আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন ১৩০ জন।
সায়েন্স টেবিল তাদের আগের মডেলিংয়ে পূর্বাভাস করেছিল, ভ্যাকসিনেশনের উচ্চ হার সত্ত্বেও আরও বেশি জনস্বাস্থ্য বিধিবিধান প্রত্যাহার সংক্রমণের নতুন ঢেউ ডেকে আনতে পারে। র্পাসপরিক দেখা সাক্ষাৎ বৃদ্ধি পেলে নভেম্বরজুড়ে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ এর মধ্যে থাকতে পারে। শুক্রবার প্রদেশে নতুন করে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হন ৫৯৮ জন। বৃহস্পতিবার এ সংখ্যা ছিল যেখানে ৬৪২ এবং এক সপ্তাহ আগে ৫৬৩।
উল্লেখ্য, ১২ বছর ও তার বেশি অন্টারিওবাসীর ৮৮ শতাংশ নাগরিক অন্তত এক ডোজ ভ্যাকসিন পেয়েছেন। উভয় ডোজ

ভ্যাকসিন পেয়েছেন প্রদেশের ৮৫ শতাংশ নাগরিক। ১২ বছরের কম বয়সী শিশুদের ওপর ভ্যাকসিন প্রদানের অনুমোদন এখনও দেয়নি হেলথ কানাডা।

 

 

 

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles