15.7 C
Toronto
সোমবার, মে ২৭, ২০২৪

২২ বছরের যুবকের বাড়িতে অনশনে ৪৩ বছরের নারী

২২ বছরের যুবকের বাড়িতে অনশনে ৪৩ বছরের নারী
যুবক ও নারী

কুড়িগ্রাম থেকে এসে ৪৩ বছর বয়সের এক নারী শরীয়তপুর পৌরসভার একটি গ্রামে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে ২২ বছর বয়সী এক যুবকের বাড়িতে অনশন শুরু করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুর থেকে শরীয়তপুর পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের হুগলি গ্রামে নাদিম সরদারের (জহির) বাড়িতে অবস্থান নেন তিনি। রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ওই নারীকে সেখানে বসে থাকতে দেখা গেছে।

- Advertisement -

অভিযুক্ত নাদিম সরদার হুগলি গ্রামের বিল্লাল সরদারের ছেলে। ওই নারী কুড়িগ্রাম জেলার বাসিন্দা।

ওই নারী জানান, ২০২৩ সালের জানুয়ারি থেকে ফেসবুকের মাধ্যমে তাদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে ২০২৪ সালের ১৮ জানুয়ারি তারা দুজনে বিয়ে করে একাধিকবার বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে থেকেছেন। বিয়ের পর থেকে স্ত্রীর স্বীকৃতি চাইলে বিভিন্ন তালবাহানা শুরু করেন নাদিম। গত ঈদুল ফিতরের পরে নাদিমের বাড়িতে আসলে তাকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। এছাড়া মোবাইলে কল দিলে রিসিভ করেন না নাদিম। এখন তিনি সম্পর্ক অস্বীকার করছেন। এমন পরিস্থিতিতে বাধ্য হয়ে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে নাদিমের বাড়িতে এসে তিনি অনশন শুরু করেছেন।

এ ব্যাপারে নাদিম সরদার বলেন, ওই নারীর সঙ্গে আমার বিয়ে হয়। কিন্তু পরে জানতে পারি তার বয়স অনেক। তিনি আমার কাছে বয়স লুকিয়েছেন। তাই পারিবারিকভাবে তার সঙ্গে আমার ডিভোর্স হয়ে যায়। তিনি কি জন্য আমার বাড়িতে এসেছেন জানি না। তিনি আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন।

এ ব্যাপারে শরীয়তপুর সদরের পালং মডেল থানার ওসি মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। দুজনেই প্রাপ্ত বয়স্ক। যদি অভিযোগ পাই তাহলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles