15.7 C
Toronto
সোমবার, মে ২৭, ২০২৪

প্রেমিকার হাতে নকল টাকাভর্তি ব্যাগ তুলে দিলেন যুবক!

প্রেমিকার হাতে নকল টাকাভর্তি ব্যাগ তুলে দিলেন যুবক!
ছবি সংগৃহীত

বিয়ের আগে প্রেমিকার নামে ফ্ল্যাট কেনার জন্য চাপ দিচ্ছিল মেয়ের পরিবার। কিন্তু অত টাকা ছিল না প্রেমিকের কাছে। এ কারণে প্রতারণার সিদ্ধান্ত নেন যুবক। শেষমেষ প্রেমিকার হাতে তুলে দেন নকল টাকাভর্তি স্যুটকেস। আর সেই ঘটনা গড়িয়েছে থানা-পুলিশ পর্যন্ত। সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটেছে চীনের হুবেই প্রদেশে।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের খবরে জানা যায়, গত ১১ এপ্রিল মধ্য চীনের গুচেং শহরে নকল টাকাভর্তি একটি স্যুটকেস নিয়ে পুলিশস্টেশনে হাজির হন এক তরুণী। তিনি জানান, এগুলো তার প্রেমিক দিয়েছে।

- Advertisement -

মেয়েটি প্রথমে ভেবেছিল, তার প্রেমিকের সঙ্গেই হয়তো প্রতারণা হয়েছে। প্রেমিক নিজেই যে তার সঙ্গে প্রতারণা করেছে, তা ঘুণাক্ষরেও ভাবতে পারেননি তিনি।

প্রেমিকের কাছ থেকে স্যুটকেসটি নিয়ে টাকাগুলো ব্যাংকে জমা দিতে গিয়েছিলেন তরুণী। কিন্তু জমা দিতে পারেননি। এ কারণে সোজা থানায় হাজির হন তিনি।

পরে পুলিশ স্যুটকেস খুলে দেখে, কেবল প্রতি বান্ডিলের ওপরের নোটগুলোই দেখতে আসল নোটের মতো। বাকিগুলো হলো কুপন, যা ব্যাংককর্মীদের প্রশিক্ষণের জন্য ব্যবহৃত হয়।

পরে জিজ্ঞাসাবাদের সময় যুবক স্বীকার করেন, তিনি ইচ্ছা করেই নকল নোটভর্তি স্যুটকেস দিয়েছিলেন প্রেমিকাকে। যুবক বলেন, ওর (প্রেমিকা) বাবা-মা চাচ্ছিলেন, আমি তাকে একটি ফ্ল্যাট কিনে দেই। কিন্তু তখন আমার কাছে এত টাকা ছিল না। তাই অনলাইনে আমি এই কাগজগুলো কিনেছিলাম।

চীনের ফৌজদারি আইন অনুসারে, জেনেশুনে যথেষ্ট পরিমাণ জাল টাকা কাছে রাখলে বা ব্যবহার করলে ১০ বছরের বেশি কারাদণ্ডের পাশপাশি পাঁচ লাখ ইউয়ান (৭৬ লাখ টাকা প্রায়) পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে।

তবে, প্রশিক্ষণ কুপনগুলো যেহেতু জাল হিসেবে স্বীকৃত নয়, এ কারণে ওই যুবকের বিরুদ্ধে কোনো মামলা করা হয়নি। যদিও তাকে সতর্ক করেছে পুলিশ।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles