17 C
Toronto
সোমবার, মে ২৭, ২০২৪

আয়কর বিবরণীতে যেভাবে হোম অফিসের ব্যয় দাবি করবেন

আয়কর বিবরণীতে যেভাবে হোম অফিসের ব্যয় দাবি করবেন
আপনি যদি বাড়িতে বসে কাজ করে থাকেন অথবা হাইব্রিড মডেল অনুসরণ করেন এবং বাড়ি ও কর্মক্ষেত্রের মধ্যকার সময় ভাগ করে নেন তাহলে চলতি বছরের বাড়িতে বসে কাজের ব্যয় খরচ চাওয়ার ক্ষেত্রে কিছু পরিবর্তন এসেছে

আপনি যদি বাড়িতে বসে কাজ করে থাকেন অথবা হাইব্রিড মডেল অনুসরণ করেন এবং বাড়ি ও কর্মক্ষেত্রের মধ্যকার সময় ভাগ করে নেন তাহলে চলতি বছরের বাড়িতে বসে কাজের ব্যয় খরচ চাওয়ার ক্ষেত্রে কিছু পরিবর্তন এসেছে। এর আগে অফিসের বাইরে থেকে কাজ করা কর্মীদের ফ্ল্যাট রেটে খরচ চাওয়ার অথবা বাড়িতে বসে কাজ করার খরচের বিস্তারিত হিসাব সরবরাহের সুযোগ ছিল। যদিও ২০২৩ করবর্ষে কানাডা রেভিনিউ এজেন্সি (সিআরএ) ফ্ল্যাট রেট প্রথা বাতিল করে কেবল ব্যয় দাবি করার বিস্তারিত পদ্ধতিটিই চালু রেখেছে।

বাড়িতে বসে কাজের খরচ দাবি করার ক্ষেত্রে কানাডিয়ানদের প্রথমেই যেটা দরকার তা হলো তারা এর যোগ্য কিনা তা নির্ধারণ করা। এরপর অন্যান্য বিষয় হিসাব করা। অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে রয়েছে বাড়িতে বসে কাজ করা দিনের সংখ্যা, তাদের বাড়িটি কতদিন কর্মক্ষেত্র হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে এবং তাদের ব্যয়ের কত শতাংশ হোম অফিস খরচ হিসেবে তারা দাবি করতে পারবেন।

- Advertisement -

বিস্তারিত পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি হোম অফিস ব্যয় দাবি করার যোগ্য কিনা তার সংজ্ঞায়নে বেশ কিছু মানদ- নির্ধারণ করেছে সিআরএ। বিষয়টির ব্যাখ্যা করে টরন্টো মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির টেড রজার্স স্কুল অব ম্যানেজমেন্টের অধ্যাপক রিচার্ড ডেকলার্ক বলেন, আপনি এটা বলতে পারবেন না যে, ঠিক আছে আজ আমি অফিসে যেতে চাই না। তাই বাড়িতে বসেই কাজ করব। আপনার নিয়োগদাতা যদি এটা অনুমোদন করেও তাহলেও তার মানে এই নয় যে, সেজন্য আপনি হোম অফিসের ব্যয় দাবি করতে পারবেন।

আপনি কেবল তখনই হোম অফিস ব্যয় দাবি করতে পারবেন যদি আপনার নিয়োগদাতার আপনাকে দিয়ে বাড়িতে বসে কাজ করার প্রয়োজন হয়। কর্মক্ষেত্রে কাজ করা সম্পর্কিত খরচ আপনাকে পরিশোধ করতে হবে এবং তা ব্যবহার হবে সরাসরি আপনার কাজে। আপনার নিয়োগদাতা আপনাকে একটি স্বাক্ষরিত টি২২০০ নামে পরিচিত ডিক্লারেশন অব কন্ডিশন্স অব এমপ্লয়মেন্ট সরবরাহ করবে।

হোম অফিসের ব্যয় দাবি করার ক্ষেত্রে আপনার বাড়িটি কতক্ষণ কর্মক্ষেত্র হিসেবে ব্যবহার করছেন সেই হিসাব দিতে হবে। ডেকলার্ক বলেন, আপনার কাজের ডেস্কটি যদি বেডরুম বা লিভিং রুম হয়ে থাকে তাহলে পুরো রুমটি আপনার কর্মক্ষেত্র হিসেবে দাবি করতে পারবেন না। কেবল যেটুকু কাজের জন্য ব্যবহার করেছেন সেটুকুই হিসাব করতে পারবেন। যেমন আমার একটি ডেস্ক ও একটি চেয়ার আছে। এখন আমি যদি আমার কর্মক্ষেত্রের রূপরেখা তৈরি করতে চাই তাহলে বলতে পারি আমার বাড়ির ৮৮ বা ১০০ বর্গফুট কাজের জন্য।

যেসব ব্যয়ের একটি যৌক্তিক অংশ বেতনভুক্ত বা কমিশনভিত্তিক কর্মীরা দাবি করতে পারবেন বলে সিআরএ জানিয়েছে তার মধ্যে রয়েছে বিদ্যুৎ, হিট, পানি, ইন্টারনেট ফি, বাড়ি বা অ্যাপার্টমেন্টের জন্য প্রদেয় ভাড়া, কন্ডোমিনিয়াম ফির পরিষেবার অংশ, রক্ষণাবেক্ষণ ও ছোটখাটো মেরামত খরচ।

তবে ব্যয় দাবি করার ক্ষেত্রে যেসব বিষয়কে বেতনভুক্ত বা কমিশনভুক্ত কর্মীদের কেউ বিবেচনায় নিতে পারবেন না তার মধ্যে রয়েছে আসবাব, ওয়াল ডেকর, ইন্টারনেট সংযোগ ফি, জানালা, মেঝে, ফার্নেস প্রতিস্থাপনের মতো মূলধনী ব্যয়, মর্টগেজের মূল পরিশোধ, মর্টগেজের সুদ পরিশোধ। সব খরচই দাবি করতে হবে টি৭৭৭ ফরমে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles