অন্য জাতের ছেলে বিয়ে করায় মেয়েকে ধর্ষণের পর হত্যা বাবার!

- Advertisement -

নিজ জাতের সাথে মিল রেখে বিয়ে না করার জেরে নিজের মেয়েকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক বাবার বিরুদ্ধে। মেয়ের পাশাপাশি তার আট মাসের শিশুপুত্রকে খুন করেন বলেও অভিযোগ। মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপালের অদূরে রতিবাদ এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

- Advertisement -

ঘটনায় ৫৫ বছরের অভিযুক্ত ওই ব্যক্তিকে আটক করেছে ভারতীয় পুলিশ। খুনের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে নিহতের ভাইকেও।

পুলিশ জানায়, পরিবারের অমতে প্রায় বছরখানেক আগে অন্য জাতের এক ছেলেকে বিয়ে করেন ভুক্তভোগী নারী। তাদের ঘরে একটি সন্তানও জন্ম নেয়। সেই সন্তান নিয়েই বাবার কাছে গিয়েছিলেন ওই নারী। কিন্তু মেয়ে এবং তার সন্তানকে খুন করেন অভিযুক্ত ব্যক্তি। এমনকি অভিযোগ আছে খুনের আগে ধর্ষণও করেন নিজের মেয়েকে। তারপর ছেলের সাহায্যে অদূরে জঙ্গলে দেহ দু’টি পুঁতে দেন।

- Advertisement -

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, পরিবারের ‘সম্মানরক্ষায়’ খুনের কথা জানালেও ধর্ষণের ঘটনাটি গোপন করেন অভিযুক্ত। পরে বনরক্ষা বাহিনীর সূত্রে খবর পেয়ে গত ১৪ নভেম্বর পুলিশ নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, ভারতে ২০১৮ সালের এক রিপোর্ট অনুযায়ী, তিন বছরে ৩০০ এর বেশি ‘অনার কিলিং’ বা ‘সম্মানরক্ষায়’ খুন হয়ে থাকে। এর জন্য ভারত সরকার বেশ কয়েকটি আইনের প্রয়োগ করে আসছে। কিন্তু বর্ণ ও জাত প্রথা কোনোভাবেই দেশটি থেকে দূর করতে পারছে না কর্তৃপক্ষ।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles