7.9 C
Toronto
শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪

ব্যবসায়ীকে বিবস্ত্র করে নারীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ

ব্যবসায়ীকে বিবস্ত্র করে নারীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ
ধান বিক্রির নামে ব্যবসায়ীকে ডেকে নিয়ে বিবস্ত্র করার পর এক নারীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও ধারণের অভিযোগ উঠেছে

বগুড়ার শাজাহানপুরে ধান বিক্রির নামে ব্যবসায়ীকে ডেকে নিয়ে বিবস্ত্র করার পর এক নারীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও ধারণের অভিযোগ উঠেছে। ওই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার নামে চাঁদা আদায়ে জড়িত শাওন পারভেজ (২৮) নামে এক প্রতারক ধরা পড়েছেন।

র‌্যাব-১২ বগুড়া কোম্পানির সদস্যরা সোমবার রাতে তাকে বগুড়ার শেরপুরের পারভবানীপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করেন। আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণে মঙ্গলবার তাকে শাজাহানপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

- Advertisement -

বিকালে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব কোম্পানি কমান্ডার পুলিশ সুপার মীর মনির হোসেন এসব তথ্য দিয়েছেন।

র‌্যাব ও এজাহার সূত্র জানায়, পেশায় ধান চাল ব্যবসায়ী আশিক মিয়া শেরপুর উপজেলার মহিপুর নতুনপাড়ার আকালু মিয়ার ছেলে। তিনি জেলার বিভিন্ন এলাকায় ব্যবসা করেন। গত ৫ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১টার দিকে এক নারী ফোন করে ধান বিক্রি করার কথা বলেন। আশিক ধান কিনতে শাজাহানপুর উপজেলার বি-ব্লক বাজারে আসেন।

পরিকল্পনা অনুসারে তাকে ধান দেখানোর নামে অটোরিকশায় জয়ন্তীবাড়ি গ্রামের ফিরোজ আহম্মেদের ছেলে শাওন পারভেজের বাড়িতে নেওয়া হয়। সেখানে কয়েকজন তার পকেট থেকে সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। তাকে ঘরে আটকে রেখে বিবস্ত্র করা হয়। এরপর এক নারীর সঙ্গে খাটের উপর বসে থাকতে বাধ্য করা হয়।

এরপর দুর্বৃত্তরা ওই নারীর সঙ্গে ব্যবসায়ী আশিক মিয়ার আপত্তিকর চিত্র ধারণ করে। এসব ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তার কাছে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করা হয়। সম্মান ও জীবন রক্ষায় ধান ব্যবসায়ী আশিক মিয়া এক লাখ ৩৮ হাজার টাকা সংগ্রহ করে তাদের দেন।

এ সময় জোরপূর্বক তার কাছে চারটি ফাঁকা নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। ব্যবসায়ী আশিক মিয়া গত ১২ ফেব্রুয়ারি শাজাহানপুর থানায় ১৩ জনকে আসামি করে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন আইনে মামলা করেন।

র‌্যাব কোম্পানি কমান্ডার পুলিশ সুপার মীর মনির হোসেন বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর ওই চক্রকে ধরতে তাদের চৌকস টিম অভিযানে নামে। সোমবার রাত ১১টার দিকে এজাহারভুক্ত ২ নম্বর আসামি শাওন পারভেজকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, টাকার লোভে ওই নারীর যোগসাজশে সহযোগীদের নিয়ে নিজ বাড়িতে এ অপরাধ করেছেন। আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আসামি শাওন পারভেজকে শাজাহানপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এছাড়া অপর আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles