7.1 C
Toronto
শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪

অভিযোগে বেলকে ছাড়িয়ে গেল রজার্স

অভিযোগে বেলকে ছাড়িয়ে গেল রজার্স
কানাডার টেলিযোগাযোগ সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অভিযোগ এখন রজার্স কমিউনিকেশন্স ইনকর্পোরেশনের বিরুদ্ধে

কানাডার টেলিযোগাযোগ সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অভিযোগ এখন রজার্স কমিউনিকেশন্স ইনকর্পোরেশনের বিরুদ্ধে। অভিযোগে বেলকে ছাড়িয়ে গেছে তারা। টেলিযোগাযোগ সেবা সম্পর্কিত প্রতি পাঁচটি অভিযোগের মধ্যে একটি রজার্সের বিরুদ্ধে। বার্ষিক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।

স্বাধীন কমিশন ফর কমপ্লেইন্টস ফর টেলিকম-টেলিভিশন সার্ভিসেসের বার্ষিক প্রতিবেদনে ২০২২ সালের ১ আগস্ট থেকে ২০২৩ সালের ৩১ জুলাই পর্যন্ত বিভিন্ন সমস্যার বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, টেলিযোগাযোগ খাতের ১৫ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো রজার্সের বিরুদ্ধে গ্রাহকদের সবচেয়ে বেশি অভিযোগ উঠল। ২০২২-২৩ সালে মোট অভিযোগের ১৯ দশমিক ৮ শতাংশ তাদের বিরুদ্ধে।

- Advertisement -

রজার্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ আগের বছরের তুলনায় ৪৩ দশমিক ৬ শতাংশ বেড়েছে। যেখানে সব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ বেড়েছে আগের বছরের তুলনায় ১৪ শতাংশ।

বেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ সব অভিযোগের ১৬ দশমিক ১ শতাংশ। এ ছাড়া টেলাস কর্পোরেশনের বিরুদ্ধে অভিযোগের হার ১২ দশমিক ৩ শতাংশ। টেলাসের বিরুদ্ধে অভিযোগ বেড়েছে আগের বছরের তুলনায় ৪৩ দশমিক ২ শতাংশ।

বৃহৎ তিন সেবাদাতার সহযোগী ব্র্যান্ডগুলোর বিরুদ্ধে অভিযোগের যে র‌্যাংকিং তা আগের মতোই আছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। সিসিটিসি কমিশনার এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হাওয়ার্ড মেকার বলেন, বার্ষিক এই প্রতিবেদনে টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যাপারে তাদের গ্রাহকরা কী ভাবেন সেটিই প্রতিফলিত হয়েছে। সেই সঙ্গে এই প্রবণতার ব্যাপারেও একটা ইঙ্গিত রয়েছে প্রতিবেদনে।

রজার্সের মালিকানাধীন শ এবং ডিসকাউন্ট ব্র্যান্ড ফিডোর বিরুদ্ধে উঠেছে ২০২২-২৩ সালের মোট অভিযোগের ৩৬ শতাংশ। এর পরেই বেলের অবস্থান। তাদের মালিকানায় রয়েছে ভার্জিন প্লাস। তাদের বিরুদ্ধে রয়েছে মোট অভিযোগের এক-চতুর্থাংশ। টেলাস গ্রুপের মালিকানাধীন কুডো ও পাবলিখ মোবাইলের বিরুদ্ধে উঠেছে মোট অভিযোগের ১৯ শতাংশ।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles