কী থেকে দূরে থাকলে দূরে থাকবে বাত-ব্যথা?

- Advertisement -
ছবি : প্রতীকী

আর্থ্রাইটিস বা বাতের ব্যথা যে কতটা যন্ত্রণাদায়ক, তা যাদের আছে তারাই কেবল বোঝেন। যেকোনও বয়সের মানুষই এই রোগে আক্রান্ত হতে পারে।

আর্থ্রাইটিসকে আবার বিভিন্ন ভাগে ভাগ করা হয়, যার মধ্যে অস্টিওআর্থারাইটিস এবং রিউম্যাটয়েড আর্থ্রাইটিস উল্লেখযোগ্য।

- Advertisement -

নির্দিষ্ট কিছু খাবার এবং পানীয়ের সেবন বাতের সমস্যা আরও বাড়িয়ে তুলতে পারে। তাহলে জেনে নিন, বাতের সমস্যা কমাতে কোন কোন খাবার এবং পানীয়গুলি এড়িয়ে চলবেন।

বিভিন্ন ধরনের প্রক্রিয়াজাত খাবার, যেমন – ক্যান ফুড, বেকড ফুড, ফ্রোজেন ফুড, ফাস্ট ফুড এবং প্যাকেটজাত স্ন্যাকস।

- Advertisement -

এগুলি যেসব উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয় সেগুলি আর্থ্রাইটিসের সমস্যা বৃদ্ধি করতে পারে।

- Advertisement -

এই সকল খাবারে, প্রচুর পরিমাণে লবন, চিনি এবং ফ্যাট থাকে। এগুলি প্রদাহ বর্ধক হিসেবে কাজ করে।
এছাড়া উচ্চমাত্রায় প্রক্রিয়াজাত খাদ্যের সেবন, স্থুলতা বৃদ্ধির পাশাপাশি ইনসুলিন প্রতিরোধক হিসেবেও কাজ করে। যা পরোক্ষভাবে আর্থ্রাইটিসের লক্ষণগুলিকে আরও খারাপের দিকে নিয়ে যায়। তাই যথাসম্ভব প্রক্রিয়াজাত খাবার খাওয়া এড়িয়ে চলুন।

রেড মিট বা লাল মাংসে ফ্যাট এবং স্যাচুরেটেড ফ্যাটের মাত্রা তুলনামূলকভাবে অনেকটাই বেশি থাকে। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা যায়, বেশি মাত্রায় রেড মিটের সেবন প্রদাহের মাত্রা বাড়ায়, ফলে জয়েন্টের ফোলাভাব এবং আর্থ্রাইটিসের লক্ষণগুলিকে আরও খারাপের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড প্রদাহ বিরোধী হিসেবে কাজ করে, তবে ওমেগা-৬ পলিআনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড প্রদাহ সৃষ্টিকারী। ওমেগা-৬ ফ্যাটি অ্যাসিড আর্থ্রাইটিসের রোগীদের ক্ষেত্রে মারাত্মক ক্ষতিকর। তাই ওমেগা-৬ বেশি খাওয়ার ফলে প্রদাহ বেড়ে যায়। ওমেগা-৬ ফ্যাটের সাধারণ উৎস হল – সয়াবিন, ভুট্টা, সূর্যমুখী, ক্যানোলা তেল, বাদাম এবং মাংস।

লবণ একটি গুরুত্বপূর্ণ খনিজ, তবে অতিরিক্ত মাত্রায় লবণের সেবন স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে মারাত্মক ক্ষতিকর হতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে যে, বেশি লবণযুক্ত খাবার ব্যথা বর্ধক হিসেবে কাজ করে।

এছাড়া অতিরিক্ত লবণ যুক্ত খাবার খেলে রিউম্যাটয়েড আর্থ্রাইটিস হওয়ার ঝুঁকিও বাড়ে।

সোডা, ফলের রস, মিষ্টিযুক্ত চা এবং অন্যান্য মিষ্টিযুক্ত পানীয়গুলিতে প্রচুর পরিমাণে চিনি থাকে। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা যায়, মিষ্টিযুক্ত পানীয় প্রদাহ বর্ধক রূপে কাজ করে। তাই চিনিযুক্ত পানীয়ের সেবন, আর্থ্রাইটিসের রোগীদের ক্ষেত্রে অত্যন্ত ক্ষতিকর।

ভাজা খাবারে স্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং ওমেগা-৬ ফ্যাটি অ্যাসিডের উচ্চ মাত্রা থাকে। উভয়ই প্রদাহ বৃদ্ধি করার পাশাপাশি, আর্থ্রাইটিসের সমস্যা বৃদ্ধি করতে কার্যকর।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles