1.1 C
Toronto
শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪

বিএনপির আলাল-নীরব ও জামায়াত নেতা মাসুদসহ ৫০ জনের কারাদণ্ড

বিএনপির আলাল-নীরব ও জামায়াত নেতা মাসুদসহ ৫০ জনের কারাদণ্ড

নাশকতার ৫ মামলায় বিএনপি যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, যুবদলের সাবেক সভাপতি সাইফুল আলম নীরবসহ ৫০ জনের বিভিন্ন মেয়াদের কারাদণ্ডের রায় ঘোষণা করেছেন আদালত।

- Advertisement -

রায় হওয়া মামলাগুলোর মধ্যে রাজধানীর ধানমন্ডি থানার একটি মামলায় আজ রবিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসিম বিএনপি যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, যুবদলের সাবেক সভাপতি সাইফুল আলম নীরবসহ ৮ জনের তিন বছর করে কারাদণ্ডের রায় ঘোষণা করেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত অপর আসামিরা হলেন- জামায়াতে ইসলামীর ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ, আব্দুল কাদের জুয়েল, শহিদুল ইসলাম, হারুন উর রশিদ, ওবাদুল হক নাসির ও শহিদুল ইসলাম হীরা।

২০১৩ সালের ১ ডিসেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডি থানার সাতমসজিদ রোধে আসামিরা একটি যাত্রীবাহী বাসে অগ্নিকাণ্ড ঘটনায়। ওই ঘটনায় ধানমন্ডি থানার এসআই আব্দুল্লাহ আল মামুন ফরাজী বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।

২০১৪ সালের ১৫ ডিসেম্বর তদন্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন ডিপি পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর মো. আবু সাঈদ।

অপর ৪ মামলার রায়ের মধ্যে পাঁচ বছর আগের রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর থানার মামলায় বিএনপির ১২ জন নেতাকর্মীর সাড়ে চার বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন- জাবেদ, সায়েম, মো. নাঈম নাইম, গাফ্ফার, মো. দেলোয়ার হোসেন, মো. শামীম, মো. কবির হোসেন, মো. সোহেল আরমানসহ প্রমুখ।

২০১৮ সালে বেআইনি সমাবেশ, পুলিশের কাজে বাধা ও নাশকতার অভিযোগ কামরাঙ্গীরচর থানায় মামলাটি দায়ের করেন পুলিশ।

আট বছর আগের আরেক নাশকতার খিলক্ষেত থানায় এক মামলায় ১০ বিএনপির নেতাকর্মীর দুই বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. মইনুল ইসলাম। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ফজলু, জহির উদ্দিন বাবু, সালাউদ্দিন দর্জি, মো. শিশির, দেলোয়ার হোসেন, তুহিন, মাহফুজুর রহমান সজিব, আনিস, হাবিব উল্লাহ হাবি ও আনোয়ার।

২০১৫ সালে জানুয়ারি মাসে নাশকতার অভিযোগে খিলক্ষেত থানার মামলাটি দায়ের করা হয়।

পাঁচ বছর আগে রাজধানীর কোতয়ালী থানার আরেক মামলায় ১১ নেতাকর্মীর সাড়ে চার বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হায়দার।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন- মো. সেন্টু, নব কুমার দত্ত, আবু তাহের, মাহির আহম্মেদ রানা, রজ্জব আলী পিন্টু, আসাদুজ্জামান রিপন, ইমরানুল হক ওয়াহিদ, মুফতিজুল কবির কিরনসহ প্রমুখ।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে নাশকতার অভিযোগ কোতয়ালী থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।

পাঁচ বছর আগে নাশকতার কোতয়ালী থানার আরেক মামলায় বিএনপির ৯ নেতাকর্মীর দুই বছর করে কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. মইনুল ইসলাম।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, সাইদ আহমেদ রানা, সাইদুর রহমান লিটন, সুজন, আলমগীর, রজ্জব আলী পিন্টু, মোল্লা জজ, মামুন, আশরাফুল আমিন ও আনোয়ারুল আজিম।

নাশকতার অভিযোগ ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে কোতয়ালী থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।

সূত্র : আমাদের সময়

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles