27.7 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জুন ২০, ২০২৪

মস্তিষ্কে বুলেট আটকে ছিল ১৮ বছর, যেভাবে মুক্তি পেলেন যুবক

মস্তিষ্কে বুলেট আটকে ছিল ১৮ বছর, যেভাবে মুক্তি পেলেন যুবক
ছবি সংগৃহীত

এক-দুই বছর নয়; টানা ১৮ বছর ধরে বুলেট আটকে ছিল মাথার ভেতরে। সম্প্রতি বেঙ্গালুরুর এক চিকিৎসকের চেষ্টায় সেই বুলেট বের করা হয়েছে।

বুলেটের আকার ছিল তিন সেন্টিমিটারের মতো। এক জটিল অস্ত্রোপচার করে তা বের করা হয়েছে।

- Advertisement -

যুবকের নাম করিম, বয়স ২৯ বছর। কানে শুনতে পান না তিনি। তার বাড়ি ইয়েমেনে। ইয়েমেনের একটি গ্রামে ছয় ভাই, তিন বোনের সঙ্গে তার বেড়ে ওঠা। বাবা-মা দুজনেই চাষি। বর্তমানে করিম দুই সন্তানের বাবা। পড়ালেখা করেছেন ইংরেজি ও ফ্রেঞ্চ ভাষার ওপর। সম্প্রতি বেঙ্গালুরুর আস্টার হাসপাতালে তার চিকিৎসা হয়। অপারেশনের মাধ্যমে বুলেটটি বের করা হয়। পাশাপাশি এখন অল্প শুনতে পাচ্ছেন করিম।

অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, বুলেটটি মস্তিষ্কের টেম্পোরাল লোবের ভেতর ঢুকে গিয়েছিল। যার ফলে মাঝে মাঝেই তীব্র মাথাব্যথা করত করিমের। পাশাপাশি কান থেকে এক ধরনের তরল ক্ষরণ হতো। এই সমস্যার চিকিৎসা করতেই ভারতে আসেন করিম।

১০ বছর বয়সে একটি ঘটনা জীবন পাল্টে দেয় করিমের। করিম বলেন, দোকান থেকে বাড়ির জন্য জিনিস কিনে ফিরছিলেন তিনি। সেই সময় দুই গ্রুপের গোলাগুলির মধ্যে পড়েন তিনি। তখন দুপুর। হঠাৎই একটি গুলি ছিটকে এসে তার মাথায় লাগে। ফিনকি দিয়ে রক্তক্ষরণ শুরু হয়ে যায়। কাছের হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা পেয়েছিল করিম। কিন্তু বুলেটটা থেকে গিয়েছিল ভেতরেই। প্রাণে বেঁচে গেলেও জীবনটা পাল্টে যায় করিমের। কানের শ্রবণক্ষমতা হারিয়ে ফেলে সে। প্রচণ্ড মাথাব্যথা নিত্যদিনের সঙ্গী হয়ে ওঠে।

চিকিৎসকদের কথায় অস্ত্রোপচার মোটেই সহজ ছিল না। কারণ মস্তিষ্কের ভেতর বুলেটের অবস্থান। যে জায়গায় ওই বুলেটটি রয়েছে, তার ঠিক পাশেই রয়েছে মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালনের গুরুত্বপূর্ণ শিরা-উপশিরা। যার একটারও ক্ষতি মানে মস্তিষ্কের গুরুতর ক্ষতি। দুদিক থেকে এক্স-রে করে প্রথমে বুলেটটির অবস্থান খুঁজে বার করা হয়। এর পর শুরু হয় অস্ত্রোপচার। চিকিৎসকদের দক্ষ হাতের জেরে শেষ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেন করিম। পুরো না হলেও আংশিক শ্রবণক্ষমতা ফিরে পেয়েছেন করিম।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles