2.9 C
Toronto
শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪

নির্বাচন করছেন বস্তা ব্যবসায়ী মোফাজ্জল

নির্বাচন করছেন বস্তা ব্যবসায়ী মোফাজ্জল
মনোনয়নের খবরে মিষ্টি বিতরণ করছেন মোফাজ্জল হক

দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে দিনাজপুর-৬ আসন থেকে নির্বাচন করছেন বস্তা ও হোটেল ব্যবসায়ী জেলার হাকিমপুর সীমান্তবর্তী দক্ষিণ বাসুদেবপুর গ্রামের মোফাজ্জল হক। তার নির্বাচনের খবর এখন হিলির বিভিন্ন মোড়ে মানুষের মুখে মুখে।

বুধবার (২৯ নভেম্বর) রাতে মোফাজ্জলের গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ মোফাজ্জলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করছেন। কেউ আবার মিষ্টি বিতরণ করছেন।

- Advertisement -

হোটেল ব্যবসা ছেড়ে কেন এমপি নির্বাচন করছেন – এমন প্রশ্ন করলে মোফাজ্জল সময় সংবাদকে জানান, জন্ম তার সীমান্তবর্তী এলাকায়। গরিব-অসহায় মানুষের সঙ্গে তার বেড়ে উঠা। ছোট থেকে দেখেছেন এমপি-মন্ত্রী হিলির উন্নয়ন নিয়ে অনেক কথা বলেছেন, কিন্তু কেউ কথা রাখেনি। রাস্তাঘাটের যে বেহাল দশা, তা দেখে তার খুব কষ্ট হয়।

তিনি বলেন, ‘মনে খুব ইচ্ছে ছিল, যদি কোনো দিন এমপি হতে পারতাম, তাহলে এলাকার অসহায় মানুষদের নিয়ে এলাকার উন্নয়ন করতাম। আল্লাহ আমার মনের কথা শুনেছেন। আমি এমপির টিকিট পেয়েছি। নির্বাচন যদি সঠিকভাবে হয়, অবশ্যই আমি জয়লাভ করবো। তাই সবার দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করছি।’

দক্ষিণ বাসুদেব পুর গ্রামের সঞ্জয় বলেন, ‘মোফাজ্জল ভাই আমার প্রতিবেশী। তার বাড়ির সামনে একটি হোটেল আছে। আর একটি ছেঁড়া-ফাটা বস্তার দোকান আছে। সেখানে বেশকিছু লোকের কাজ হয়েছে। গতকাল (বুধবার) যখন জানলাম ভাই এমপির টিকিট পেয়েছেন, অবাক হলাম। যখন বাস্তবে দেখলাম তখন মনেহল এমন লোক যদি এমপি হয় তাহলে গরীব মানুষের কথা শুনবে, এলাকার উন্নয়ন হবে।’

এলাকাবাসী মোসলেম উদ্দিন বলেন, ‘তৃণমূল বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন হিলির ছোটো হোটেল ও বস্তা ব্যবসায়ী মোফাজ্জল হোসেন। এবার তিনি সংসদ সদস্য হয়ে উন্নয়নসহ অসহায় মানুষের পাশে থাকতে চান। মনোনয়ন পাওয়ার খবরে আনন্দে পুরো এলাকায় মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে।’

মোফাজ্জল হোসেন হিলি হাকিমপুর উপজেলা সীমান্তবর্তী দক্ষিণ বাসুদেব পুর এলাকার মৃত হাতেম আলীর ছেলে। ছোট থেকেই তিনি সৎভাবে জীবন যাপন করে আসছেন। বাড়ির পাশে ছোট্ট একটি হোটেল শুরু করেন। পরে বাড়ির পাশে পুরাতন ছেঁড়া-ফাটা বস্তা সেলাইয়ের দোকান খুলে বসেন, যেখানে কর্মসংস্থান হয় বেশ কিছু বেকার যুবকের। নির্বাচিত হয়ে এলাকার গরিব-দুঃখী মানুষকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করার কথাও জানান তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী নির্বাচন কমিশনার অমিত রায় সময় সংবাদকে বলেন, ‘তৃণমূল-বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচনের জন্য ফরম কিনেছেন।’

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles