8.8 C
Toronto
শুক্রবার, এপ্রিল ১২, ২০২৪

সুন্দর হওয়ায় বিয়ের নিমন্ত্রণ পাননি, মনে করেন ইংলিশ নারী

সুন্দর হওয়ায় বিয়ের নিমন্ত্রণ পাননি, মনে করেন ইংলিশ নারী
ফ্রাঁ সয়ার ছবি সংগৃহীত

সবাই সুন্দর হতে চায়! কারণ সুন্দর মুখের জয় সর্বত্র। তবে কখনও কখনও এই সৌন্দর্য আমাদের জন্যে আশীর্বাদের পরিবর্তে অভিশাপও হয়ে ওঠতে পারে। সম্প্রতি তেমনই এক ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন এক ইংরেজ নারী।

ইংল্যান্ডের বেসিনস্টোকের বাসিন্দা ৫৫ বছর বয়সী ফ্রাঁ সয়ার। অত্যন্ত সুন্দরী দেখতে এই নারী নিজের সুন্দর হওয়াকেই জীবনের সবচেয়ে বড় দুঃখের কারণ বলে মনে করেন। তিনি সুন্দরী আর সেই কারণেই নাকি কেউ তার বন্ধু হতে চান না বা কেউ তাকে বিয়ের অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রণও জানান না।

- Advertisement -

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি স্টারের প্রতিবেদনে বলা হয়, ফ্রাঁ সয়ার শৈশব থেকেই এই সমস্যায় ভুগছিলেন। ছোটবেলা থেকেই কেউ তার সঙ্গে কথা বলতেন না। পরেও যখনই কোনো বন্ধুর বিয়ে হত বা বন্ধুরা মিলে আনন্দ করতেন, তখনও কেউ তাকে ডাকতেন না।

ফ্রাঁ সয়ার জানিয়েছেন, বিশেষ করে তাকে অপছন্দ করেন নারী, অনেক নারীই তাকে নানা দিক থেকে সমালোচনা করেন। তার চেহারার গ্ল্যামার দেখেও তারা ঈর্ষান্বিত হন।

সুন্দরী এই ইংরেজ নারী আরও জানান, অনেকেই তার সৌন্দর্যকেই একাকিত্বের জন্য দায়ী করেছেন। তবে তার মতে, যারা আত্মবিশ্বাসী, তারা এইসব নিয়ে চিন্তা করেন না, কিন্তু যারা নিরাপত্তাহীনতা বোধ করেন, তারাই তাকে দেখে ঈর্ষান্বিত হন।

বর্তমানে ইনস্টাগ্রামে ফ্রাঁর ১ লাখ ১৫ হাজারেরও বেশি অনুসারী রয়েছে, তবে আক্ষেপের বিষয় হলো তিনি এখনও নিজের মতো একজন বন্ধুর খোঁজে পাননি। তিনি জানিয়েছে, প্রেমের ক্ষেত্রে তিনি ভাগ্যবতী ছিলেন। তিনি শত শত প্রেমপ্রস্তাব পেয়েছেন, কিন্তু প্রকৃত ভালোবাসা খুঁজে পাননি!

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles