7.9 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৮, ২০২১

মহামারিতে কানাডায় এয়ারলাইন্সগুলোর রাজস্ব ব্যাপক হারে হ্রাস পেয়েছে

- Advertisement -
ছবি/এয়ার কানাডা মিডিয়া

কানাডায় কোভিড-১৯ মহামারিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত খাতগুলোর অন্যতম এয়ারলাইন্স। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনার কৌশল হিসেবে কানাডা ও বিশ্বব্যাপী নাগরিকদের ঘরে থাকার আহ্বান জানানোর ফলে এয়ারলাইন্সগুলোর রাজস্ব ব্যাপক হারে হ্রাস পেয়েছে। আকাশপথে কানাডায় প্রবেশকারীদের ক্ষেত্রে নতুন করে কড়াকড়ি আরোপ আকাশ ভ্রমণকে আরও অনাকর্ষণীয় করে তুলেছে। কারণ, আকাশপথে কানাডায় প্রবেশকারীদের এখন নিজ খরচে হোটেলে তিন দিন কোয়ারেন্টিনে থাকা বাধ্যতামূলক করেছে। ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে নতুন এ বিধান কার্যকর হয়েছে। এদিকে, টিকিট বিক্রির পরও কোভিড-১৯ মহামারির কারণে যেসব ফ্লাইট বাতিল বা স্থগিত করতে হয়েছে সেসব ফ্লাইটের যাত্রীদের অর্থ ফেরত দিতে সম্মত হয়েছে এয়ার কানাডা। প্রণোদনার অর্থ পাওয়ার শর্ত হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে এয়ারলাইন্সটি।

বেসরকারি খাতের কর্মীদের প্রতিনিধিত্বকারী সবচেয়ে বড় সংগঠন ইউনিফরের প্রেসিডেন্ট জেরি ডায়াস বলেন, এয়ার কানাডা ও ফেডারেল সরকারের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তারা আমাকে জানিয়েছে, প্রণোদনার শর্ত পূরণের অংশ হিসেবে টিকিটের অর্থ ফেরত দিতে রাজি এয়ার কানাডা।

- Advertisement -

যদিও ফেডারেল সরকার বা এয়ার কানাডা কেউই এখন পর্যন্ত এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেনি। যাত্রী অধিকার নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান গত বছর থেকেই টিকিটের অর্থ ফেরত দিতে এয়ারলাইন্সগুলোর কাছে দাবি জানিয়ে আসছে। তবে কবে নাগাদ কোম্পানি ও সরকারের মধ্যে প্রণোদনা সংক্রান্ত চুড়ান্ত চুক্তি হবে সেটি এখনও পরিস্কার নয়।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles