ক্যাথলিক চার্চকে ক্ষমা চাওয়ারও আহ্বান

- Advertisement -
পোপের তরফ থেকে ক্যাথলিক চার্চকে কানাডার আবাসিক স্কুলে আদিবাসী শিশুদের জোর করে ভর্তি করার ব্যাপারে তাদের যে ভূমিকা সেজন্য ক্ষমা চাওয়ারও আহ্বান জানানো হয়েছে

পোপ ফ্রান্সিসের তরফ থেকে ক্যাথলিক চার্চকে কানাডার আবাসিক স্কুলে আদিবাসী শিশুদের জোর করে ভর্তি করার ব্যাপারে তাদের যে ভূমিকা সেজন্য ক্ষমা চাওয়ারও আহ্বান জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে চার্চকে তার কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চাওয়া, আবাসিক স্কুল সংক্রান্ত নথি প্রকাশ ও ভুক্তভোগী ও তাদের পরিবারের জন্য তহবিল সংগ্রহেরও আহ্বান জানানো হয়েছে।

টিকে’এমলাপসের প্রধান রোজোনে ক্যাসিমির বলেন, চার্চ যাতে আইন ও আর্থিক বাধ্যবাধকতা মেনে চলে সেটিও চান ভুক্তভোগীরা।
দ্য কানাডিয়ান প্রেস জানায়, দিনক্ষণ ঠিক না হলেও পোপ ফ্রান্সিস কানাডা সফরের আগ্রহী বলে ভ্যাটিকানের পক্ষ থেকে গত সপ্তাহে জানানো হয়েছে। কানাডার কেন্দ্রীয় অর্থায়নে চার্চ পরিচালিত আবাসিক স্কুল ব্যবস্থার ইস্যুটি জোরেশোরে শোনা যায় গত মে মাসে। ওই সময় ২০০ এর বেশি অচিহ্নিত কবরের সন্ধান পাওয়ার কথা ঘোষণা করে টিকে’এমলামপস। পরবর্তী সাবেক বিভিন্ন আবাসিক স্কুলে আরও কবরের সন্ধান পাওয়া গেছে।

- Advertisement -

টিকে’এমলাপসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, স্থানীয় ও আঞ্চলিক ক্যাথলিক প্রতিনিধিরা এজন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তবে ক্যাথলিক চার্চের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে কখনই ক্ষমা চাওয়া হয়নি। তাদের তত্ত্বাবধানে থাকা শিশুদের মৃত্যুর বিষয়টি ক্যাথলিক চার্চের স্বীকৃতি দিতে হবে।

যদিও আবাসিক স্কুলে আদিবাসী শিশুদের প্রতি সংঘটিত অন্যায়ের দায়ভার গ্রহণ ও এক্ষেত্রে তাদের ভূমিকার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ার কথা বরাবরই অস্বীকার করেছে ক্যাথলিক চার্চ।

এদিকে, ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার একটি ফার্স্ট নেশনের নেতারা তাদের অঞ্চলে পোপ ফ্রান্সিসকে স্বাগত জানানোকে অর্থবহ মনে করছেন। ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার কামলুপসে টিকে’এমলাম্পস টি সেকুয়েপেমসি নেশনের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সফরটি হবে সম্প্রীতির প্রতীকের চেয়ে বেশি কিছু এবং এর সঙ্গে কার্যকর পদক্ষেপ।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles