21.3 C
Toronto
রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪

ভারত থেকে বেশ কয়েকজন কূটনীতিককে সরিয়ে নিয়েছে কানাডা: রিপোর্ট

ভারত থেকে বেশ কয়েকজন কূটনীতিককে সরিয়ে নিয়েছে কানাডা: রিপোর্ট

শিখ নেতা হরদীপ সিং নিজ্জার হত্যাকাণ্ডের জের ধরে ভারত-কানাডার কূটনৈতিক সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। অটোয়াকে ১০ অক্টোবরের মধ্যে কূটনীতিক সরাতে সময় বেঁধে দিয়েছিল দিল্লি। কানাডা এরই মধ্যে ভারতে কর্মরত বেশ কিছু কূটনীতিককে সরিয়ে মালয়েশিয়া বা সিঙ্গাপুরে নিয়েছে বলে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে।

- Advertisement -

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে ভারতীয় এজেন্টদের যুক্ত করার অভিযোগের পর ক্রমবর্ধমান কূটনৈতিক বিরোধের মধ্যে এই সপ্তাহের শুরুর দিকে ভারত কানাডাকে তার মিশন থেকে কয়েক ডজন কূটনীতিককে প্রত্যাহার করার কথা বলার পরে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

ভারত এই অভিযোগকে অযৌক্তিক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে প্রত্যাখ্যান করেছে এবং এই মামলায় একজন ভারতীয় কর্মকর্তাকে অটোয়া থেকে বহিষ্কার করার জন্য কানাডার একজন সিনিয়র কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘নয়া দিল্লির বাইরে ভারতে কর্মরত বেশিরভাগ কানাডিয়ান কূটনীতিককে কুয়ালালামপুর বা সিঙ্গাপুরে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।’

সিটিভি নিউজ সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, ভারত সরকার কানাডার কূটনৈতিক কর্মীদের কানাডায় ভারতীয় কূটনীতিকদের সংখ্যার সমান করার জন্য অটোয়াকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত সময় দিয়েছে। পূর্ববর্তী প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল যে কূটনীতিকদের সংখ্যা ৪১ থেকে কমাতে হবে। তবে সিটিভি জানিয়েছে, এ বিষয়টি সমতার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা পূর্বে বলেছিল, কিছু কূটনীতিক বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে হুমকি পেয়েছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার জন্য ভারত সরকারকে অভিযুক্ত করার কয়েকদিন পর বিভাগটি বলেছে, ‘ফলে এবং প্রচুর সতর্কতার কারণে, আমরা সাময়িকভাবে ভারতে কর্মীদের উপস্থিতি সামঞ্জস্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেছেন, দিল্লিতে পারস্পরিক কূটনৈতিক উপস্থিতিতে পৌঁছানোর পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা চলছে এবং স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়েছেন যে ভারত এই বিষয়ে তার অবস্থান পর্যালোচনা করবে না।

তিনি বলেন, কানাডায় ভারতের শক্তির তুলনায় ভারতে কানাডার কূটনৈতিক উপস্থিতি অনেক বেশি, তাই ধারণা করা হচ্ছে সেখানে কমানো হবে। আমাদের ফোকাস কূটনৈতিক শক্তিতে সমতা নিশ্চিত করার দিকে।

জানা গেছে, ভারতে কানাডিয়ান কূটনীতিকের সংখ্যা প্রায় ৬০ এবং নয়াদিল্লি চায় অটোয়া যেন কমপক্ষে তিন ডজন কমিয়ে আনে।

কানাডা ভারতের সঙ্গে নিজ্জরের হত্যা সংক্রান্ত কোনো তথ্য বা প্রমাণ শেয়ার করেছে কিনা জানতে চাইলে বাগচী পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সাম্প্রতিক মন্তব্যের কথা উল্লেখ করে বলেন, যদি কোনো নির্দিষ্ট বা প্রাসঙ্গিক তথ্য নয়াদিল্লিকে দেখানো হয়, তবে এটি দেখতে আগ্রহী।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles