22.1 C
Toronto
সোমবার, মে ২০, ২০২৪

প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে, স্বামীর ঘরে হলেন লাশ

প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে, স্বামীর ঘরে হলেন লাশ
নিহত গৃহবধূ আফসানা ছবি সংগৃহীত

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার মদনপুর থেকে আফসানা (২০) নামের এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী মো. অনিক মিয়াকে আটক করা হয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মদনপুর নেহাল সরদারের বাগ এলাকার ভাড়াবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আফসানা পাশের সোনারগাঁও উপজেলার কাঁচপুর রাগারটেক গ্রামের মৃত জুলফিকার আলীর মেয়ে।

- Advertisement -

নিহতের ভাই খাইরুল ইসলাম জানান, মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার রামারফুর গ্রামের গিয়াসউদ্দিনের ছেলে অনিকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয় আফসানার। সেই সূত্র ধরে দুই বছর আগে পালিয়ে বিয়ে করেন তারা। বিয়ের পর থেকে তারা বন্দরের লাউসার নেহাল সরদারের বাগ করিম মেম্বারের বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস করতেন। তাদের সংসারে আব্দুল্লাহ নামের ১০ মাসের এক সন্তান রয়েছে। পারিবারিক কলহের জেরে গতকাল রাতে আফসানাকে মারধর ও শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহ ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখেন তার স্বামী।

প্রতিবেশীরা জানান, বিয়ের পর দুই বছর একই বাসায় ছিল তারা। খুঁটিনাটি ঘটনা নিয়ে প্রায়ই তাদের ঝগড়া ও মারামারি হতো। গতকাল রাতেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এরপর রাত দেড়টার দিকে বাড়ির মালিককে অনিক ডেকে এনে দেখান, তার স্ত্রী গলায় ফাঁস নিয়েছেন। এ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে রাতেই মরদেহ উদ্ধার করে।

ধামগড় পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) তৌহিদুজ্জামান জানান, এক গৃহবধূর আত্মহত্যার খবর পাই। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি ওই গৃহবধূর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সুরতহাল প্রস্তুত করে মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় গৃহবধূর স্বামী অনিককে আটক করা হয়েছে। থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সূত্র : আমাদের সময়

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles