3.6 C
Toronto
রবিবার, এপ্রিল ২১, ২০২৪

ইন্টারেস্ট রেট বাড়ায় বাড়ির মার্কেটে কী প্রভাব পড়বে?

ইন্টারেস্ট রেট বাড়ায় বাড়ির মার্কেটে কী প্রভাব পড়বে?
ব্যাঙ্ক অব কানাডা বুধবার ইন্টারেস্ট রেট আরও এক ধাপ বাড়ালো

ব্যাঙ্ক অব কানাডা বুধবার ইন্টারেস্ট রেট আরও এক ধাপ বাড়ালো। ০.২৫% বেড়ে প্রাইম রেট গিয়ে ঠেকলো ৬.৯৫% এ। গত বছর মার্চ থেকে এ পর্যন্ত ব্যাঙ্ক অব কানাডার পলিসি রেট বেসিস পয়েন্ট ০.২৫% থেকে বেড়ে ৪.৭৫% এ দাঁড়িয়েছে। ১২ জুলাই ব্যাঙ্ক অব কানাডার পরবর্তী ঘোষণার তারিখ নির্ধারিত আছে!

আসুন দেখা যাক ইন্টারেস্ট রেট এই ০.২৫% বাড়াতে বাড়ির মার্কেটে কী প্রভাব পড়তে যাচ্ছে। এ লেখায় সংযুক্ত ছবিতে ২টি অবস্থার ব্যাখ্যা করেছি।

- Advertisement -

আপনি একজন নতুন ক্রেতা। টরন্টোতে ১ মিলিয়ন ডলারের একটি বাড়ি কিনতে চাচ্ছেন। ২০% ডাউন পেমেন্ট, ল্যান্ড ট্রান্সফার ট্যাক্স, ল’ইয়ার ফিস বাবদ ক্লোজিংয়ে আপনার খরচ হবে আনুমানিক ২ লাখ ২৮ হাজার ডলার।

ইন্টারেস্ট রেট ০.২৫% বাড়ার আগের অবস্থা:

ধরাযাক ৫% ইন্টারেস্ট রেট (ফিক্সড রেট) এ মর্টগেজ পেলে আপনার মাসিক খরচ হত আনুমানিক ৫ হাজার ৩৭০ ডলার। ভাড়া থেকে ১,৮০০ ডলার আয় করলে পকেট থেকে আপনার খরচ হত ৩ হাজার ৫৭০ ডলার।

ইন্টারেস্ট রেট ০.২৫% বাড়ার পরের অবস্থা:

এখন ৫.২৫% ইন্টারেস্ট রেট (ফিক্সড রেট) এ মর্টগেজ পেলে আপনার মাসিক খরচ হবে আনুমানিক ৫ হাজার ৪৯০ ডলার। ভাড়া থেকে ১,৮০০ ডলার আয় করলে পকেট থেকে খরচ হবে ৩ হাজার ৬৯০ ডলার।
ইন্টারেস্ট রেট ০.২৫% বাড়াতে আপনার পকেট থেকে মাসে বাড়তি খরচ হবে আনুমানিক $১২০ ডলার।

বাড়ির মার্কেটে কী প্রভাব:

আমার ব্যক্তিগত অভিমত, ইন্টারেস্ট রেট ০.২৫% বাড়াতে ট্রানজেকশন কিছুটা কমে আসবে। বাড়ির দামেও নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। তবে তা বেশিদিন দীর্ঘস্থায়ী হবে না। কারণ মার্কেটে অনেক ক্রেতা আছেন, সেই তুলনায় বিক্রির জন্য মার্কেটে বাড়ির সংখ্যা অনেক কম। অর্থনীতির সেই চাহিদা-যোগান নীতিই এখানে মার্কেটটাকে নিয়ন্ত্রণ করবে।

আরেকটি কারণ বাড়ি ভাড়া অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাওয়া। টরন্টোতে এক বেডরুমের এপার্টমেন্ট এর ভাড়া এখন প্রায় ২ হাজার ডলার। ২ বেডরুমের বেজমেন্ট এর ভাড়া এখন প্রায় ২,২০০ ডলার। তাই অনেকে এমন ভাড়া না দিয়ে প্রোপার্টি কিনতে চাইবেন। কারণ তাতে অন্তত অন্যের মর্টগেজ না দিয়ে নিজের বাড়ির মর্টগেজ শোধ করা যাবে।
অর্থনীতিবিদরা ধারণা করছেন, ১২ জুলাই হয়ত আরও এক ধাপ (০.২৫%) ইন্টারেস্ট রেট বাড়তে পারে।

এমনটা হলে কিছু বাড়ির মালিক (যাদের মর্টগেজ ভেরিয়বেল রেট এবং সীমিত পারিবারিক উপার্জন) তাদের বাড়ি বিক্রি করে দিতে বাধ্য হবেন। পাওয়ার অব সেলও তুলনামূলক বাড়তে পারে। তবে এমন অবস্থা হলে তা আবার ক্রেতাদের জন্য ভালো হবে। কম দামে বাড়ি কিনতে ক্রেতারা হুমড়ি খাবেন! এতে আবার দাম বেড়ে যাবে। যেমনটা আমরা গত ৮-১০ মাসে পর্যবেক্ষণ করেছি!

বাড়ি কেনা-বেচা সংক্রান্ত যে কোন পরামর্শের জন্য যে কোন সময়ে আমাকে ফোন করতে পারেন:- 647-572-5600 এই নম্বরে। অথবা ই-মেইলেও যোগাযোগ করতে পারেন এই ঠিকানায়- [email protected]। আমার ওয়েবসাইট www.MahbubOsmani.com

আমি সম্পূর্ণ ফ্রিতে তথ্য দেই এবং এর বিনিময়ে আমার কাছ থেকে বাড়ি কেনা অথবা বেচা বাধ্যতামূলক নয়!
আপনাদের সকলের সুস্বাস্থ্য ও সুন্দর জীবন কামনা করি ।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles