-3.5 C
Toronto
সোমবার, জানুয়ারী ৩০, ২০২৩

কারাগারেই মেরে ফেলা হতে পারে তুনিশার প্রেমিক সেজানকে!

কারাগারেই মেরে ফেলা হতে পারে তুনিশার প্রেমিক সেজানকে!
তুনিশা শর্মা ও সেজান

অভিনেত্রী তুনিশা শর্মার আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলায় এখনো দোষী সাব্যস্ত হননি সেজান মোহাম্মদ খান। মৃত্যু রহস্যের তদন্তে অভিযুক্ত সেজান খানকে আদালতের নির্দেশে আরও ১৪ দিন পুলিশের হেফাজতে রাখা হবে।

কিন্তু কারাগারে নিজের জীবনের শঙ্কা করছেন সেজান। খবর আনন্দবাজারের।

- Advertisement -

সেজানের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, তার নিজেরই জীবনের ঝুঁকি রয়েছে। কেউ তাকে বিষ খাইয়ে হত্যা করতে চায় বলে সেজানের ধারণা। সে জন্য হাজতে থাকাকালীন বাড়ির তৈরি খাবার খেতে চান বলে আবেদন জানিয়েছেন সেজান। পাশাপাশি তিনি বিশেষ রক্ষীর বন্দোবস্ত চেয়েছেন।

এদিকে তুনিশা শর্মার আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ার আগেই সেজানের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। রিমান্ডে থাকার সময় সেজান খানের প্রতি অতিরিক্ত কঠোর হওয়া নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

পায়ে জুতা নেই, মুখ ঢাকা, সেজানের ঘাড় ধরে টানতে টানতে আদালতে নেওয়া হচ্ছে— এ রকম একটি ভিডিও বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।

অভিনেতা সেজান খানের প্রতি প্রশাসনের এ ধরনের আচরণে সমালোচনার ঝড় বইছে। প্রশ্ন উঠেছে— এখনো দোষী সাব্যস্ত হননি, তার আগেই একজন অভিনেতার সঙ্গে এ ধরনের ব্যবহার কেন? রিমান্ডে থাকাকালীন অভিযুক্তের প্রতি এ ধরনের আচরণ ‘অমানবিক’ ও বেআইনি বলেই মনে করছেন অনেকেই।

ভারতের মুম্বাইয়ে একটি সিরিয়ালের শুটিং সেটের মেকআপ রুম থেকে গত শনিবার তুনিশার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় তুনিশা শর্মার প্রেমিক সেজান মোহাম্মদ খানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলা হয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles