6 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০২৩

পেলেকে শ্রদ্ধা জানিয়ে যা বললেন মেসি, রোনালদো ও এমবাপ্পে

পেলেকে শ্রদ্ধা জানিয়ে যা বললেন মেসি, রোনালদো ও এমবাপ্পে
মেসি ও পেলে

ফুটবলের তুমুল জনপ্রিয়তার অনেকটাই ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলের অবদান। তার মৃত্যুর খবরে শোকাহত হয়েছেন লিওনেল মেসি-ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, নেইমার ও কিলিয়ান এমবাপ্পে-সহ ফুটবলপ্রেমীরা। পেলের মৃত্যু কাঁদিয়েছে তাদের। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বার্তা দিয়ে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন তারা।

পেলের সঙ্গে নিজের ছবি দিয়ে মেসি লিখেছেন, ‌‘শান্তিতে ঘুমান পেলে।’

- Advertisement -

পর্তুগিজ মহাতারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো লিখেছেন, ব্রাজিলের জন্য আমার গভীর সমবেদনা। বিশেষ করে এডসন অরান্তেস দো নাসিমেন্তোর পরিবারের প্রতি। ফুটবলের চিরন্তন রাজার বিদায় ফুটবল-দুনিয়া যে ব্যথা অনুভব করছে তা প্রকাশ অযোগ্য। তিনি লাখো মানুষের অনুপ্রেরণা। আজ, কাল এবং সারাজীবনের জন্য তিনি দৃষ্টান্ত। তিনি কখনো বিস্মৃত হবেন না। আমাদের মতো ফুটবলপ্রেমীদের স্মৃতিতে তিনি থেকে যাবেন সব সময়। শান্তিতে ঘুমান রাজা পেলে।
নেইমার লিখেছেন, পেলের আগে ‘১০’ শুধু একটি সংখ্যা ছিল। যা আমি আমার জীবনে কোথাও না কোথাও পড়েছি। আমি বলবো, পেলের আগে ফুটবল ছিল শুধু একটি খেলা। পেলে সবকিছু বদলে দিয়েছেন। তিনি ফুটবলকে শিল্পে, বিনোদনে রূপান্তরিত করেছেন। গরিব এবং বিশেষ করে কৃষ্ণাঙ্গদের কণ্ঠস্বর হয়ে উঠেছিলেন পেলে। ব্রাজিলকে একটা ছবি দেখতে সাহায্য করেছিলেন। ধন্যবাদ রাজা, তোমার জন্য ফুটবল এবং ব্রাজিলের স্থান উঁচু হয়েছে। পেলে নেই কিন্তু তার জাদু থেকে যাবে। পেলে সব সময় থেকে যাবেন।

আরেক ব্রাজিলিয়ান কাসেমিরো বলেছেন, শান্তিতে ঘুমান পেলে। ফুটবল এবং ব্রাজিলকে আপনি যে গৌরব এনে দিয়েছেন সে জন্য ধন্যবাদ। আপনার উত্তরাধিকার চিরন্তন।

নিজের রেকর্ড ভাঙতে দেখে এমবাপ্পেকে ভালোবাসার বার্তা পাঠিয়েছিলেন ফুটবলের রাজা। সেই পেলের বিদায়ের পর এমবাপ্পে লিখেছেন, ফুটবলের রাজা আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। তবে তার কীর্তি কখনো আমাদের ছেড়ে যাবে না। শান্তিতে ঘুমান রাজা।

ব্রাজিলিয়ান ফুটবল কিংবদন্তি পেলে ৮২ বছর বয়সে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেছেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত একটায় (বাংলাদেশ সময়) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স এ তথ্য জানায়।

১৯৫৮ সালে ব্রাজিলের হয়ে বিশ্বকাপ জয় করেন পেলে। পরে ১৯৬২ এবং ১৯৭০ সালেও বিশ্বকাপ জয় করেন তিনি। ফুটবল ইতিহাসে একমাত্র ফুটবলার হিসেবে তিনটি বিশ্বকাপ জয়ের রেকর্ড তার। বিশ্বের আর কোনো ফুটবলারের এমন নজির নেই।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles