4.5 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৮, ২০২২

টিআর-কাবিখার ভাগাভাগি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের মারামারি

টিআর-কাবিখার ভাগাভাগি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের মারামারি

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় টিআর ও কাবিখা-কাবিটার ভাগাভাগি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতি, মারধর ও অফিস ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

- Advertisement -

সোমবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলা পরিষদ ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা যায়, এ উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে টিআর ও কাবিখা-কাবিটার ভাগাভাগি নিয়ে জন প্রতিনিধিদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে।

২০২২-২৩ অর্থ বছরের টিআর ও কাবিখা-কাবিটার উপজেলা পরিষদের বরাদ্দ ২০ ভাগের ভাগাভাগি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুনের অফিসে দুই ভাইস চেয়ারম্যানের সঙ্গে তার বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। এ সময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন নাহার উপজেলা চেয়ারম্যানকে গালিগালাজ করতে থাকে। এক পর্যায়ে উপজেলা চেয়ারম্যান অফিস ত্যাগ করে চলে যান।

খবর পেয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ও চাচাসহ তার লোকজন অফিসে এসে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন নাহারের অফিসে ভাঙচুর করেন এবং তার স্বামীকে মারধরও করেন এমন অভিযোগ জেসমিন নাহারের। তবে উপজেলা পরিষদের অপর ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মিরু এ ঘটনার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুনকে দায়ী করেছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন নাহারকে দায়ী করে উপজেলা পরিষদে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেন জানান। সেই সঙ্গে ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন নাহার ২০২০-২১ অর্থ বছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আওতায় বরাদ্দকৃত ছাগল বিনামূল্যে বিতরণ করেন। হাতীবান্ধা উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ ও অ্যাপ্রোন সরবরাহ প্রকল্পের কাজ না করে সব টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছেন এ বিষয়টি জানতে চাইলে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজির হোসেন জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের মধ্যে যে ঘটনাটি ঘটেছে তা দুঃখজনক। এ বিষয়ে তারা যদি আইনি ব্যবস্থা নিয়ে থাকেন তাহলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সূত্র : আরটিভি

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles