4.4 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৮, ২০২২

কোভিড জয়ের ঘোষণা আসার সম্ভাবনা কম

কোভিড জয়ের ঘোষণা আসার সম্ভাবনা কম
আলবার্টার প্রিমিয়ার জেসন কেনি

এক বছর ধরে মহামারি সংক্রান্ত বিচ্ছিন্নবাস ও অনিশ্চয়তার পর ২০২১ সালে ৫ লাখ দর্শনার্থী টানতে সমর্থ হয় ক্যালগেরি স্ট্যামপিড। এটা ছিল আলবার্টার প্রিমিয়ার জেসন কেনির জন্য সবচেয়ে ভালো গ্রীষ্ম।

পোডিয়ামের পেছনে দাঁড়িয়ে কেনি ঘোষণা দেন, আলবার্টা কোভিড-১৯ সংক্রমণ নস্যাৎ করতে সক্ষম হয়েছে এবং ব্যাকইয়ার্ডে বারবিকিউ, স্বপ্নের বিয়ে, কনসার্ট, পার্টি এবং অবশ্যই স্ট্যামপিড ফিরে আসছে। আজ আমরা সত্যিই এর সমাপ্তির কাছাকাছি পৌঁছে গেছি। মহামারির অন্ধকার দিনগুলো পেছনে ফেলে আমরা গ্রীষ্মের উষ্ণ আলোর দিকে হেঁটে যাচ্ছি।

- Advertisement -

এর মাসখানিক পরই ডেল্টা ওয়েভ আছড়ে পড়ে আলবার্টায়। প্রদেশের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রগুলোতে রীতিমতো বিপর্যয় নেমে আসে। এ ধরনের ঘোষণা আর না আসার সম্ভাবনাই বেশি। যদিও অন্যান্য বিশ^ নেতারা মহামারিকে পেছনে ফেলে আসার প্রস্তুতি শুরু করেছেন বলেই মনে হচ্ছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন মিশিগানের ডেট্রয়েটের অটো শোতে বলেন, মহামারির সমাপ্তি হয়েছে। এখনও কিছু কাজ বাকি আছে। তবে বিপর্যয় বন্ধ হয়েছে। কেউই আর মাস্ক পরছেন না। প্রত্যেকেই ভালো আছেন এবং আমার মনে হয়, পরিস্থিতির বদল হচ্ছে।

ভাইরাস সংক্রান্ত কানাডার সতর্ক রাজনৈতিক বার্তা কখনই এতোটা আশাবাদের নয়। নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে এক সংবাদ সম্মেলনে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, কোভিডের প্রভাবে আমাদের দেশজুড়ে হাসপাতালগুলোতে লোকজনকে এখনও ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। জনগণকে তিনি ভ্যাকসিন ডোজ হালনাগাদ করে নেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, যত দ্রুত সম্ভব মহামারিকে আমরা পেছনে ফেলে আসা নিশ্চিত করতে চাই।

সরকারের দুজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে দ্য কানাডিয়ান প্রেসকে বলেন, ভ্যাকসিনের বাধ্যবাধকতা ৩০ সেপ্টেম্বর বাতিল করার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো নীতিগতভাবে সম্মত হয়েছেন। ঘোষণার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর অ্যারাইভক্যান অ্যাপ আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীদের জন্য আর বাধ্যতামূলক থাকবে না।

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ যেসব বিধিনিষেধ তাও আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাহার করে নেওয়ার কথা হচ্ছে। তবে জাস্টিন ট্রুডো এখন পর্যন্ত এসব পরিবর্তন নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো কথা বলেননি। লিবারেল সরকরা সর্বশেষ বিধিনিষেধ শিথিল করেছিল জুনে। সে সময় অভ্যন্তরীণ ভ্রমণকারীদের জন্য বাধ্যতামূলক ভ্যাকসিনেশন বাতিল করা হয়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles