5.1 C
Toronto
শুক্রবার, ডিসেম্বর ২, ২০২২

১৫ রাত একসঙ্গে কাটানোর পর ‘বেপাত্তা’ প্রেমিক! উত্তরপ্রদেশ থেকে মালদায় এসে ধরনায় বসলেন যুবতী

১৫ রাত একসঙ্গে কাটানোর পর ‘বেপাত্তা’ প্রেমিক! উত্তরপ্রদেশ থেকে মালদায় এসে ধরনায় বসলেন যুবতী

বিয়ের (Marriage) প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করেছিলেন। কিন্তু, এখন আর বিয়ে করতে চান না যুবক। আর বিয়ে করতে চান না বলেই এলাকা ছেড়ে বেপাত্তা হয়ে যান তিনি। তাই বাধ্য হয়েই উত্তরপ্রদেশ (Uttar Pradesh) থেকে এরাজ্যে এসে সোজা প্রেমিকের (Lover) বাড়ির দরজার সামনে ধরনায় বসে পড়লেন যুবতী। এদিকে, পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে বাড়ি থেকেও পালিয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন অভিযুক্ত প্রেমিক। বুধবার এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদার (Malda) হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লকের মহেন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাংরুয়া গ্রামে।

- Advertisement -

সূত্রের খবর, ওই যুবতীর বাড়ি উত্তরপ্রদেশের বিজনোর জেলার বিচপরী মান্ডিয়া এলাকায়। তবে, ওই যুবতীর মামারবাড়ি মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লকের মহেন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাংরুয়া গ্রামে। গত তিন বছর আগে মামারবাড়িতে এসেছিলেন তিনি। আর সেই সময়ই ওই গ্রামের বাসিন্দা অভিযুক্ত প্রেমিক শেখ মজিফুলের ছেলে ইব্রাহিম আলির সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়েছিল। সেই থেকে তাঁদের মধ্যে বন্ধুত্ব তৈরি হয়। তার থেকে প্রেম (Relationship)। জানা গিয়েছে, উভয়ের সম্মতিতেই তাঁরা সহবাসও করেছিলেন।

বিয়েতে অস্বীকার প্রেমিকের
যুবতীর অভিযোগ, ইব্রাহিম তাঁকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। আর সেই প্রতিশ্রুতির জেরেই সহবাসে রাজি হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু, এখন আর বিয়ে করতে চান না ইব্রাহিম। তাই একপ্রকার বাধ্য হয়েই বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির দরজার সামনেই ধরনায় বসেন তিনি। নববধূর সজ্জাতেই উত্তরপ্রদেশ থেকে ছুটে এসে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ির দরজার সামনে ধরনায় বসেন তিনি।

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বেপাত্তা প্রেমিক
ওই যুবতী জানিয়েছেন, ইব্রাহিমের সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ ৩ বছরের সম্পর্ক। সবই ঠিকঠাক চলছিল। দিল্লির এক হোটেলে এক সঙ্গে ১৫ দিন রাতও কাটিয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু, তারপর হঠাৎ বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বেপাত্তা হয়ে যান ইব্রাহিম। যুবতীর দাবি, অভিযুক্ত প্রেমিক কয়েক দফায় ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা নিয়েছেন এবং তা তিনি নিজের বাড়িতে পাঠিয়েছে। এদিকে, বিয়ের কথা বললেই নানা কারণে এড়িয়ে যেতেন ইব্রাহিম। তারপর দিল্লিতে যুবতীকে ফেলে রেখে পালিয়ে যান ইব্রাহিক। আর তার জেরেই বুধবার নববধূর সাজে তিনি ইব্রাহিমের বাড়ির সামনে ধরনায় বসেন। এদিকে বুধবার সকালে পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে গা ঢাকা দেন প্রেমিক ইব্রাহিম। তাঁর কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। অবশ্য এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

সূত্র : এই সময়

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles