4.4 C
Toronto
সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২

গ্রিন পার্টির প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ

গ্রিন পার্টির প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ
গ্রিন পার্টি অব কানাডার প্রেসিডেন্ট লোরেইন রেকমান্স

গ্রিন পার্টি অব কানাডার প্রেসিডেন্ট লোরেইন রেকমান্স পদত্যাগ করেছেন। দলীয় সদস্যদের কাছে লেখা চিঠিতে তিনি বলেছেন, দলের মধ্যে চলমান বিশৃঙ্খলা তাঁর আশাবাদকে মেরে ফেলেছে।

রেকমান্সের চিঠির একটি অনুলিপি দ্য কানাডিয়ান প্রেসের হাতে এসেছে। চিঠিতে তিনি বলেছেন, আমি আর দায়িত্ব চালিয়ে যেতে পারছি না। কারণ, সুন্দর আগামীর কোনো স্বপ্ন বেঁচে নেই। যা আছে তা কেবল পেছনে ফিরে দেখা এবং পুরনো বিষয় মীমাংসা করা। আমি দলটি ছেড়ে দিচ্ছি। নৈতিক কারণেই আমি পদত্যাগ করছি। নেতৃত্ব নির্বাচনের প্রতি আমার কোনো আস্থা নেই। তাদেরও আমার প্রতি কোনো আস্থা নেই এবং আমি ফেডারেল কাউন্সিলের ওপর থেকে আস্থা হারিয়েছি। নেতৃত্ব প্রত্যাশীরা তাঁকে কোণঠাসা করে রেখেছেন এবং অপমানিত করেছেন। তাদের একজন দলের মুখ্য মুখপাত্র হলে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব চালিয়ে যাওয়া আমার পক্ষে সম্ভব হবে না।

- Advertisement -

লিঙ্গ নিয়ে অন্তবর্তী প্রধান অমিতা কাটনারের ভুল তথ্য প্রদানের নিন্দা জানিয়ে নেতৃত্ব প্রত্যাশী ছয় জনের মধ্যে চার জন যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করেন। তবে তাৎক্ষণিক ক্ষমা চাওয়ায় রেকমান্সের প্রশংসা করেন তারা।

অনামি পলের স্থলে নতুন নেতা খুঁজতে এই গ্রীষ্মে নেতৃত্বের নির্বাচনের সূচনা করেছে গ্রিন পার্টি। ২০২১ সালের নির্বাচনে হতাশাজনক ফল করার পর দলীয় প্রধানের পদে ইস্তফা দেন অনামি পল। তাঁর পুরো সময়জুড়ে দলীয় কোন্দলে বিপর্যস্ত ছিল দল। দলের কারও কারও বিরুদ্ধে বর্ণবাদ ও যৌন হয়রানির অভিযোগও ছিল।

তবে যৌথ বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেননি নেতৃত্ব প্রত্যাশী সারাহ গ্যাব্রিয়েলে। তিনি বলেন, পার্টির বিষয় অভ্যন্তরীণভাবেই মীমাংসা করা উচিত।
বিবৃতিতে স্বাক্ষর না করা আরেক প্রার্থী সিমন নোচিনি-মেসিয়ের বলেন, প্রেসিডেন্ট হিসেবে রেকমান্সের প্রতি পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। দলের মধ্যে ট্রান্সফোবিক আচরণ তদন্ত করে এর অবসানে রেকমান্স পদক্ষেপ নেবেন বলে তাঁর বিশ্বাস আছে।

নেতৃত্ব প্রত্যাশী অন্য প্রার্থীদের কাছ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে মন্তব্য জানা সম্ভব হয়নি। নভেম্বরের মধ্যেই গ্রিন পার্টির নতুন নেতৃত্বের নাম ঘোষণা করা হবে।

 

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles