8.6 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

মৃত চিকিৎসকের পরিচয় ব্যবহার করে রোগী দেখতেন আকরাম

- Advertisement -

ঝিনাইদহে নাক কান গলা বিশেষজ্ঞ পরিচয় দেওয়া আকরাম হোসেন অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) তথ্য-প্রযুক্তির সহযোগিতায় ঢাকা থেকে তাকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মো. আশিকুর রহমান।

আটককৃত আকরাম হোসেন সিরাজগঞ্জের পুটিয়া গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে।

ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, বরিশাল মেডিকেল কলেজের ২৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. আকরাম হোসেন ২০১৫ সালের ২৭ মার্চ মৃত্যুবরণ করেন। তার বাড়ি বাগেরহাটের ভদ্রপোতা গ্রামে। বাবার নাম মো. আকবার হোসেন। তিনি স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ ছিলেন।

আক্তারুজ্জামান মৃত ডা. আকরামের সার্টিফিকেট ব্যবহার করে ঝিনাইদহ, আলমডাঙ্গা, ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে নামিদামী বেসরকারি ক্লিনিক ও হাসপাতালের নাক কান গলা বিশেষজ্ঞ হিসেবে রোগী দেখতেন ও অপারেশন করে আসছিলেন। বিষয়টি জানাজানি হলে তাকে আটকের জন্য ঝিনাইদহ জেলা শহরের আরাপপুর এলাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। কিন্তু সুকৌশলে বেসরকারি ওই হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান তিনি। তারপর থেকে তার পিছু নেয় পুলিশ।

ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মো. আশিকুর রহমান জানান, মৃত ডাক্তারের কাগজপত্র এবং বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের রেজিস্ট্রেশন নম্বর (৩৫৩১৯) ব্যবহার করে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার হিসেবে দেশের বিভিন্ন স্থানে গেল কয়েক বছরে অসংখ্য রোগী দেখেছেন ওই ভুয়া ডাক্তার। অথচ বিষয়টি এতদিন কারও নজরে আসেনি।

তিনি আরও জানান, শেষ পর্যন্ত ঢাকার গোয়েন্দা পুলিশের সহযোগিতায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়েছে। প্রাথমিকভাবে তার কাছ থেকে সিলপ্যাডসহ বিভিন্ন কাগজপত্র পাওয়া গেছে।

সূত্র : ঢাকাপোস্ট

Related Articles

Latest Articles