19.2 C
Toronto
সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০২২

বাসে দলবদ্ধ ধর্ষণ ও ডাকাতি, গ্রেপ্তার মূলহোতা

- Advertisement -

কুষ্টিয়া থেকে চট্টগ্রামগামী একটি যাত্রীবাহী বাসে ডাকাতি ও এক নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সকালে মধুপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাজহারুল আমিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে বুধবার এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি কালিহাতী উপজেলার বল্লা গ্রামের হারুন অর রশিদের ছেলে রাজা মিয়া। তিনি টাঙ্গাইল শহরের নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন ও ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ঝটিকা বাসের চালক ছিলেন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার (২ আগস্ট) কুষ্টিয়া থেকে ঈগল পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। পরে বুধবার (৩ আগস্ট) ভোরে বাসটি বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিমপাড়ে পৌঁছালে ১০ থেকে ১২ জন যাত্রী ওঠেন। তার কিছুক্ষণ পরেই যাত্রীবেশে থাকা ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে ঘুমন্ত যাত্রীদের হাত-মুখ ও চোখ বেঁধে জিম্মি করে। এরপর যাত্রীদের কাছে থাকা মোবাইল, টাকা, স্বর্ণালংকার লুট করে নেয়। পরে গাড়িতে থাকা নারী যাত্রীদের দলবদ্ধ ধর্ষণ করে। এ সময় টানা তিন ঘণ্টা যাত্রীদের ওপর নির্যাতনের পর টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার রক্তিপাড়া নামক স্থানে এসে বাসটির গতি থামিয়ে ডাকাত দল নেমে যায়। পরে বাসটি দুর্ঘটনার শিকার হয়। এ খবর পেয়ে পেয়ে মধুপুর থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে।

মধুপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাজহারুল আমিন জানান, এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

জেলা গো‌য়েন্দা পু‌লি‌শের উত্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও‌সি) মোহাম্মদ হেলাল উ‌দ্দীন বলেন, টাঙ্গাইল সদর এলাকায় অভিযান চা‌লি‌য়ে রাজা মিয়া‌কে গ্রেপ্তার করা হ‌য়েছে। প্রাথ‌মিক জিজ্ঞাসাবা‌দে সে চলন্ত বা‌সে ডাকা‌তি করার ঘটনা স্বীকার ক‌রে‌ছে।

তিনি আরও বলেন, গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি জানিয়েছেন, তারা ১০ জন মি‌লে বাস জি‌ম্মি ক‌রে চলন্ত অবস্থায় যাত্রী‌দের কাছ থে‌কে সব কিছু ডাকা‌তি ক‌রে‌ছে। এ সময় বা‌সে থাকা এক নারী‌কে তার সহ‌যো‌গীরা ধর্ষণ ক‌রে‌ছে।

সূত্র : আরটিভি

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles