22.7 C
Toronto
বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০২২

রজার্সের সেবা বিড়ম্বনায় ছোট ব্যবসার বড় ক্ষতি

- Advertisement -
রজার্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টনি স্ট্যাফিয়েরি

রজার্স টেলিকমিউনিকেশনের সেবা বিঘেœর ফলে ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো বিপুল পরিমাণ ক্ষতির মুখে পড়েছে। তাদের আশঙ্কা, টেলিকম জায়ান্টটি এর উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ নাও দিতে পারে।

তারা বলছে, ইন্টারনেট ও মোবাইল ফোন সেবায় বিঘœ ঘটায় গ্রাহকদের সেবা দেওয়া সম্ভব হয়নি, যেটা তারা নিয়মিত দিয়ে থাকে। এমনকি ডেবিট কার্ডে বিলও নিতে পারেনি তারা। কারণ, ইন্টার‌্যাকের সেবা রজার্সের ওপর নির্ভরশীল।

কানাডিয়ান ফেডারেশন অব ইন্ডিপেন্ডেন্ট বিজনেসেসের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কমর্কতা ড্যান কেলি বলেন, রজার্সের সেবা বিড়ম্বনার কারণে বড় অংকের আর্থিক ক্ষতির সব ধরনের গল্পই আমার কানে এসেছে।

মেরামতের পর নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা কাজ না করার কারণে সেবায় বিঘœ ঘটায় ক্ষমা চেয়েছেন রজার্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টনি স্ট্যাফিয়েরি। সেই সঙ্গে নেটওয়ার্ক কাজ না করার সময়টুকুর জন্য গ্রাহকদের ক্ষতিপূরণ প্রদানের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন।
ক্ষতিপূরণের ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে চাইলে রজার্সের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করা হয়নি। তবে কিছু গ্রাহককে টুইটের মাধ্যমে জানানো হয়, দুই দিনের সেবার সমপরিমাণ অর্থ দেওয়া হবে এবং তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে চলে যাবে।

ইন্টার‌্যাক গ্রাহকদের কোনো ধরনের ক্ষতিপূরণ দেবে কিনা জানতে চাইলে তারাও এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেনি। তবে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ব্যবসায়ীদেরকে এক মাসের বিনামূল্যে সেবা দেওয়া রজার্সের উচিত বলে মনে করেন কেলি। কারণ, কোম্পানিগুলো কোভিড-১৯ মহামারির ধাক্কা এখনও পুরোপুরি কাটিয়ে উঠতে পারেনি।

তিনি বলেন, কানাডার কিছু অঞ্চলে গত দুই বছরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো ৪০০ দিন পর্যন্ত বন্ধ ছিল। তাই এই পুনরুদ্ধার পর্বে প্রত্যেকটি দিনের বিক্রিই খুব গুরুত্বপূর্ণ। এটা পাশবিক এবং অস্বস্তির চেয়েও বেশি কিছু।

রজার্সের সেবা বিঘেœর কারণে কয়েকশ ডলার ব্যবসা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন বলে মনে করেন মর্নিং প্যারেড কফি বারের এলেক্ট্রা সিমস। কারণ, ওয়াই-ফাই না থাকায় অনেকেই অন্য স্থানের খোঁজে চলে যান। ডেবিট সেবা বন্ধ থাকায় যারা বিল পরিশোধ করতে পারেননি তাদের অনেককেই পরবর্তীতে বিল পরিশোধ করতে পারবেনে বলে জানান। তাদের অনেকেই পরবর্তীতে ফিরে আসেন কিন্তু ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব হয়নি।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles