24.9 C
Toronto
বুধবার, আগস্ট ১০, ২০২২

বিয়ে করতে না পেরে ক্যাট-ভিকিকে হত্যার হুমকি

- Advertisement -
ছবি: সংগৃহীত

বলিউডে একের পর এক হত্যার হুমকি আসছে তারকাদের ওপর। এই তালিকায় এবার যুক্ত হলো তারকা দম্পতি ভিকি কৌশল ও ক্যাটরিনা কাইফ। সোশ্যাল মিডিয়ায় হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে এ তারকা যুগলকে।

পুলিশের বরাত দিয়ে এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে সর্বপ্রথম ঘটনাটি সামনে এসেছে। সেখানে জানানো হয়েছে, মুম্বাইয়ের সান্তাক্রুজ থানায় অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ভিকি-ক্যাটরিনা। মামলার তদন্ত করছে পুলিশ।

এএনআই টুইট করেছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিকি আর ক্যাটরিনাকে হুমকি দেয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে এক ব্যক্তিকে। এর আগের টুইটে এএনআই থেকে লেখা হয়েছিল, সান্তাক্রুজ পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ করেন ভিকি কৌশল। জানান, এক ব্যক্তি সোশ্যাল মিডিয়ায় হুমকি দিচ্ছে তাকে আর ক্যাটরিনাকে। ফলোও করছে ক্যাটরিনাকে এবং হুমকি দিচ্ছে।

পুলিশের ডেপুটি কমিশনার মঞ্জুনাথ সিঙ্ঘে জানান, আইপিসির ৫০৬-এর ২, ৩৫৪র ডি ধারা ও আইটি অ্যাক্ট, ২০০০ এর ৬৭ ধারায় অভিযোগ করা হয়েছে। ভিকি পুলিশকে আরও জানিয়েছেন, এ রকম হুমকি আর ফলো করা অনেকদিন ধরেই চলছে। শেষে বাধ্য হয়ে পুলিশের কাছে আসেন অভিনেতা।

গ্রেফতার ব্যক্তির নাম মানবিন্দর সিং।মানবিন্দর সিং উত্তরপ্রদেশের লখনৌর বাসিন্দা। মুম্বাইয়ে চলচ্চিত্র এবং টিভি সিরিজে কাজ পাওয়ার লড়াই করছেন। অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফের ভক্ত তিনি।

ইন্ডিয়া টুডে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, উঠতি এ অভিনেতা ক্যাটরিনাকে পছন্দ করেন। প্রিয় অভিনেত্রীকে বিয়েও করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু কিছু দিন আগে ভিকেকে বিয়ে করেন ক্যাটরিনা। এজন্য গত কয়েক মাস ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্যাটরিনাকে মেসেজ পাঠিয়ে উত্ত্যক্ত করতেন।
এখানেই শেষ নয়। বিভিন্ন ছবি এবং ভিডিওতে ক্যাটরিনার মুখ এডিট করে বসিয়ে নিজের ‘স্ত্রী’ বলে উল্লেখ করতেন। ইনস্টাগ্রামে মানবিন্দরের যে অ্যাকাউন্ট রয়েছে, তাতে ক্যাটরিনা এবং তার এডিটেড ছবিতে ভরা! ভিকির সঙ্গে ক্যাটরিনার বিয়ের পর ইনস্টাগ্রামে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। এরপর প্রাণনাশের হুমকি দেন ক্যাটরিনা-ভিকিকে। বর্তমানে পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন মানবিন্দ।

ভিকি-ক্যাটরিনার আগে জুন মাসে স্বরা ভাস্করকে দেয়া হয়েছিল খুনের হুমকি। অভিনেত্রীর ভার্সোভার বাড়িতে ফেলে আসা হয়েছিল ওই চিঠি। হুমকি পেয়েছেন সালমানও। সালমান ও তার বাবাকে খুন করার কথা লেখা ছিল। ২০২১ সালের নভেম্বরে হিমাচল পুলিশের কাছে গিয়েছিলেন কঙ্গনা এই একই অভিযোগ এনে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles