22.7 C
Toronto
বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০২২

বিয়ের পর পাল্টে গেছে জীবন

- Advertisement -
ক্যাটরিনা কাইফ। পুরোনো ছবি

‘কামলি কামলি’, ‘চিকনি চামেলি’, ‘শিলা কি জওয়ানি’, ‘কালা চশমা’, ‘আফগান জালেবি’ গানগুলো তার দুর্দান্ত নাচের কারণে সুপারডুপার হিট। ‘নিউইয়র্ক’, ‘এক থা টাইগার’, ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’, ‘রাজনীতি’, ‘ধুম থ্রি’র মতো আরও অনেক ছবিতে অনবদ্য অভিনয় দিয়ে পর্দা মাতিয়েছেন। গ্ল্যামার, অভিনয় ও ছবি বাছাই- এসবই তাকে নিয়ে গেছে বলিউডের প্রথম সারিতে। তিনি ক্যাটরিনা কাইফ। আজ বলিউডের জনপ্রিয় এ অভিনেত্রীর জন্মদিন। হংকংয়ে জন্ম নেওয়া ক্যাটরিনার বাবা মোহাম্মদ কাইফ কাশ্মীরি এবং মা সুজানা টারকোট ব্রিটিশ। মুসলিম বাবা এবং খ্রিস্টান মায়ের সন্তান হলেও নিজে কোন ধর্মের অনুসারী, সে বিষয়ে কখনই খোলাসা করে কিছু বলেননি ক্যাটরিনা। এখন পর্যন্ত বহুবার মসজিদ, মন্দির, গির্জা এবং সুফি মাজারে ভ্রমণ করতে দেখা গেছে তাকে। একবার এক সাক্ষাৎকারে ক্যাটরিনা জানিয়েছিলেন, সব সময় তাবিজ পরেন তিনি।

এদিকে কদিন ধরেই বলিউডে জোর গুঞ্জন, মা হতে চলেছেন ক্যাটরিনা কাইফ। কারণ বেশ কয়েকদিন ধরে দেখা মিলছে না অভিনেত্রীর। এমনকি করণ জোহরের জন্মদিনেও তিনি যাননি। এর পর থেকেই সন্দেহ দানা বাঁধতে শুরু করেছিল। তবে ক্যাটরিনা ও ভিকি কৌশল এ নিয়ে এখনো মুখ খোলেননি। ভারতীয় বেশ কিছু সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, নিজের জন্মদিনেই (১৬ জুলাই) খুশির খবরটি সবার সঙ্গে শেয়ার করবেন ক্যাটরিনা। বেশ কিছুদিন ধরে শুটিং না থাকায় ক্যাটরিনা এখন আছেন মুম্বাইয়ে। শ্বশুর-শাশুড়িসহ পরিবারের সবার সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন। এই অবসরে রান্নাটাও শিখে নিচ্ছেন। অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, ক্যাট আগে কফি ছাড়া কিছুই বানাতে পারতেন না। তবে বিয়ের পর নিজের ‘দুর্নাম’ ঘোচাতে উঠেপড়ে লেগেছেন। কোনো একটি বিশেষ খাবার নয়, বরং দুপুরের বা রাতের পূর্ণাঙ্গ খাবার তৈরি শিখছেন তিনি। এ ব্যাপারে শাশুড়ির প্রবল উৎসাহও পাচ্ছেন। তিনি ছেলের বউকে রান্নার অনেক কিছু দেখিয়েও দিচ্ছেন। সবমিলিয়ে বিয়ের পর পাল্টে গেছে ক্যাটরিনার জীবন।

খুব ছোট থাকতেই মা-বাবার বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়ার পর মায়ের সঙ্গে যুক্তরাজ্যে বসবাস শুরু করেন ক্যাটরিনা। সেখানেই তার বেড়ে ওঠা। মডেলিংয়ের মাধ্যমে পেশাজীবন শুরু করেন। ২০০৩ সালে ‘বুম’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয় তার। পরিবারের সবাই যুক্তরাজ্যে বসবাস করলেও কাজের তাগিদে ভারতে স্থায়ী নিবাস গেড়েছেন ক্যাটরিনা। বলিউডের পাশাপাশি তেলেগু ও মালয়ালম ছবিতেও অভিনয় করেছেন ক্যাটরিনা। এখন পর্যন্ত বহু ব্যবসাসফল ছবি এবং সাবলীল অভিনয় উপহার দিয়ে বলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তিনি। দীর্ঘ অভিনয়জীবনে কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ফিল্মফেয়ার, পিপলস চয়েস, স্টারডাস্ট, আইফা, জি সিনে, স্টার স্ক্রিন, রাজীব গান্ধী অ্যাওয়ার্ডসহ বহু পুরস্কার ঝুলিতে ভরেছেন ক্যাটরিনা কাইফ।

অজানা পাঁচ

– ১৪ বছর বয়সে জুয়েলারির মডেল হিসেবে ক্যাম্পেইন শুরু করেন ক্যাটরিনা। অভিযোগ রয়েছে, অভিনেত্রী তার প্রকৃত বয়স মিডিয়ার সামনে লুকিয়েছেন। কিছু প্রতিবেদনে ক্যাটের জন্ম সাল ১৯৮৩ লেখা হলেও কোথাও কোথাও ১৯৮৪ দেখা যায়।

– ছোটবেলায় তার নাম রাখা হয় ক্যাটরিনা টরকোট। তিনি আধা ব্রিটিশ ও আধা ভারতীয় নাগরিক। তার বাবা মোহাম্মদ কাইফ কাশ্মীরি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ ব্যবসায়ী। ক্যাটরিনা হংকংয়ে জন্মগ্রহণ করলেও ১৪ বছর বয়স পর্যন্ত হাওয়াইতে থেকেছেন। এর পর তিনি লন্ডনে চলে যান, যদিও এখন তিনি ভারতের মুম্বাইতে থাকেন। ক্যাটরিনার ছয় বোন ও এক ভাই আছে।

-‘বুম’ ছবিতে অভিনয়ের সময় তার নামে সামান্য পরিবর্তন করা হয়। সেই ছবির প্রযোজক আয়েশা শ্রফ ২০১১ সালে মুম্বাই মিররকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘পাসপোর্টে ওর নাম ছিল ক্যাটরিনা টরকোট। একজন অভিনেত্রীর নাম হিসেবে এটি জুতসই লাগছিল না। প্রথমে আমরা চিন্তা করলাম, তার নাম হতে পারে ক্যাটরিনা কাজি। পরে ওর বাবার নাম থেকে কাইফ শব্দটি যুক্ত করে ঠিক করলাম ক্যাটরিনা কাইফ। সবাই তখন বলল, প্রথমটি থেকে এটা খুবই সুন্দর শোনাচ্ছে। কিন্তু মজার বিষয় হলো, আমাদের পুস্তিকায় ক্যাটরিনা কাজি নামটি লেখা হয়ে গিয়েছিল। আমরা পরে সংবাদমাধ্যমে জানাই, সেটি ছাপার ভুল ছিল।’

– ‘ওয়েলকাম’ ছবিতে ক্যাটরিনা দুই লাখ রুপি মূল্যের পোশাক পরেছিলেন। সেটি তাকে উপহার দিয়েছিলেন ডিজাইনার এমিলিও পুচ্চি। ভারী মেকআপ খুবই অপছন্দ তার। অভিনয় জগতে ক্যাটরিনার পছন্দ লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও, জনি ডেপ, শাহরুখ, আমির, হৃত্বিক, কাজল ও মাধুরীকে।

– ‘মেরে ব্রাদার কি দুলহান’ ও ‘নিউইয়র্ক’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য দুবার ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে নমিনেশন পান ক্যাটরিনা। কিন্তু এখনো পুরস্কার জিততে পারেননি। তার শখ অভিনয়, নাচ, দাবা খেলা, সিনেমা দেখা ও ছবি আঁকা। তিনি ক্যাজুয়াল পোশাক পরতে পছন্দ করেন।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles