19.3 C
Toronto
সোমবার, জুন ২৭, ২০২২

আমিও তাদেরই একজন

- Advertisement -
আমিও তাদেরই একজন
ছবি সংগৃহীত

গ্রেট লাঞ্চ,গ্রেট মনুষ্যদের সাথে। গত শনিবার প্রিয় আকবর ভাই (মাননীয় লেফ্টেনেন্ট জেনারেল আকবর হোসেন ) এর মিরপুর ক্যান্টামেন্ট বাসায়। এখন তিনি এনডিসি (ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ) র সর্বেসর্বা কমান্ডেন্ট। বাড়ির পেছনে আম,কাঠাল,বেল আরো কত ফলের বৃক্ষে ভরা সবুজ জীবন্ত ঘাসের কার্পেটে মোড়া বিশাল লন। আমার প্রিয় তরুণ বন্ধু বর্তমানে মেরী স্টোপ বাংলাদেশ এর কান্ট্রি ডিরেক্টর কিশওয়ার ইমদাদের সূত্রে এদের সাথে পরিচয়। আরো ছিলেন স্পেশালাইড হাসপাতালের বিজ্ঞ অর্থপেডিক সার্জান ডাক্তার জাভেদ রশীদ,আইটি বিশষজ্ঞ,লেখক মারুফ জাকারিয়া,টরন্টো প্রবাসী স্থপতি নাজমুল হাসান রানা ও ডাক্তার মিজানুর রহমান আরিফ লেন ডিরক্টর বাংলাদেশ সরকারের ডিরেক্টর জেনারেল অব হেলথ সার্ভিসেস।
এছাড়া এনারা সবাই ফৌজদারহাট কেডেট কলেজের ২৪নং ব্যাচের ছা্ত্র সহপাঠি। তাদেরই এই গ্রেট লাঞ্চ সম্মিলন। আমি বেমানান হওয়ার কথা! অথচ আমার বিন্দুমাত্র বেমানান লাগেনি। মনে হয়েচ্ছি আমিও তাদেরই একজন। কারণ হচ্ছে সেই শৈশবকাল থেকে ফৌজদারহাট নিউ পতেঙ্গা বীচের সঙ্গে আমার প্রেম। প্রতি সপ্তায় একবারতো যেতামই মাঝে মাঝে দুইবারও চলে যেতাম। একা ঘন্টাকে ঘন্টা ঘুরে বেড়াতাম। বেশ খানিকটা হাঁটলে বড় জেলে পাড়া। সর্দারের ছেলে মণিন্দ্র জলদাস বন্ধু মানুষ। ভাত খাওয়াতো তাজা লইট্টা মাছ ভাজা দিয়ে,চা খাওয়াতো এস এর মত আকৃতির বিস্কুট দিয়ে।

মাঝে মধ্যে তার সঙ্গে বঙ্গপোসাগরে ভেসেও পড়তাম জেলে নৌকায়। ১৯৭৫ এরপর দেশ যখন বদলে গেলো তখন দেশকে মণিন্দ্রের প্রতীক করে একটি বড় গল্প লিখে ছিলাম নাম ‘মণিন্দ্র অসুস্থ’। আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ তাঁর সাহিত্য ত্রৈমাসিক ‘কন্ঠস্বরে’ ছেপে ছিলেন।

শৈশবে নিউ পতেঙ্গা বীচে যেতে হলে চট্টগ্রাম শহর থেকে বাসে করে ফৌজদারহাট কেডেট কলেজের সমনে এসে নামতাম। এক কলেজের পাশাপাশি কত বিল্ডিং কত খেলার মাঠ। বাস্কেটবল খেলছে কেউ,অন্য মাঠে ফুটবল চলছে।পেছনে উঁচু পাহাড়ে বড় হরফে লেখা ‘কথা নয় কাজ’।

আমার খুব ইচ্ছে হতো যদি এই কেডেট কলজ স্কুলের ছাত্র হতে পারতাম। এটাই পাকিস্তানী আমলের ইস্ট পকিস্তানের প্রথম কেডেট কলেজ। আজও বাংলাদেশের অনেক গুলো কেডেট কলেজে রাজা কেডেট কলেজ ফৌজদারহাট। আজ সারা পৃথিবীর কত বড় ছোট শহরে কত খুঁজেছি অন্তত একজন ফৌজদারহাট কেডেট কলেজের জীবনে ব্যর্থ ছাত্র,খুঁজে পয়নি।হয়তো পাবোও না। উপরে পড়লেনইতো ক’জনের সাফল্যের নমুনা। আমার বাবার সামর্থ বা ইচ্ছা কোনোটাই ছিলোনা ফৌজদারহাট কেডট দূরে থাক চট্টগ্রাম পাথরঘাটায় আমর প্রিয় স্কুল সেন্ট প্লাসিড ও ভাগ্যে জোটেনি।

স্কারবোরো, অন্টারিও, কানাডা

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles