24.6 C
Toronto
শুক্রবার, জুলাই ১, ২০২২

আইএসের নারী যোদ্ধাদের প্রশিক্ষণের দায় স্বীকার যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকের

- Advertisement -
আইএসের নারী যোদ্ধাদের প্রশিক্ষণের দায় স্বীকার যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকের
অ্যালিসন ফ্লুকে-ইকরেন। ছবি: বিবিসি অনলাইন

কথিত ইসলামিক স্টেটের (আইএস) হয়ে সিরিয়াতে একটি নারী স্কোয়াডের নেতৃত্ব দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের এক নারী। এ ছাড়া আমেরিকার মাটিতে আক্রমণের পরিকল্পনার কথাও তিনি স্বীকার করেছেন।

মঙ্গলবার ভার্জিনিয়ার একটি আদালতে তিনি নারীদের সব দলকে প্রশিক্ষণের অভিযোগ স্বীকার করেন। তবে তিনি কখনো শিশুদের রিক্রুট করার চেষ্টা করেননি বলে দাবি করেন।

অ্যালিসন ফ্লুকে-ইকরেন (৪২) নামের এই নারী শতাধিক নারীকে সহিংসতার জন্য প্রশিক্ষণ দিয়েছেন বলে আদালতে স্বীকারোক্তি দেন। প্রশিক্ষণ নেওয়া ওই নারীদের মধ্যে বয়স্ক এবং শিশুও ছিল। বুধবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইন এই খবর দিয়েছে।

বিবিসি জানায়, শিক্ষক থেকে আইএস নারী নেতা হয়ে উঠা এই মা ২০১১ সালে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়েন এবং সিরিয়ায় যাওয়ার আগে লিবিয়াতে একটি সন্ত্রাসী দলের সঙ্গে কাজ করেন। অক্টোবরে তার দণ্ড ঘোষণা করা হবে এবং সর্বোচ্চে ২০ বছরের কারাদণ্ড পেতে পারেন তিনি।

ফ্লুকে-ইকরেন বায়োলজিতে পড়াশোনা করেছেন এবং স্কুল শিক্ষক ছিলেন। তুরস্ক এবং লিবিয়ায় বসবাসের পর তিনি আইএসে যোগ দিতে সিরিয়ায় যান।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আইএসের তথাকথিত রাজধানী খ্যাত সিরিয়ার রাক্কায় তিনি নারীদের নিয়ে গঠিত ব্যাটালিয়ন খাতিবা নুসাইবাহ’র নেতৃত্ব দিতেন। তার প্রাথমিক দায়িত্ব ছিল নারী এবং শিশুদের অস্ত্রের ব্যবহার, একে-৪৭ রাইফেলস, গ্রেনেড এবং সুইসাইড ভেস্ট কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তা শেখানো।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles