25.3 C
Toronto
শনিবার, জুন ২৫, ২০২২

সাপকে খাবার দিতে গিয়ে আঙুলে কামড়, কথা গোপন রেখে মরলেন কর্মী

- Advertisement -

সাপকে খাবার দিতে গিয়ে আঙুলে কামড়, কথা গোপন রেখে মরলেন কর্মী

পটুয়াখালীতে পালিত সাপের কামড়ে জব্বার তালুকদার নামে ২৭ বছর বয়সী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাতে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান।

মৃত জব্বার সদর উপজেলার ছোটবিঘাই ইউনিয়নের হরতুকিবাড়িয়া গ্রামের রফেজ তালুকদারের ছেলে। তিনি পটুয়াখালীর নন্দীপাড়া গ্রামের রাজ্জাক বিশ্বাসের সাপের খামারে কাজ করতেন।

সাপের খামারের কর্মচারীরা জানান, শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে সাপের খামারে খাবার দিতে যান জব্বার। এ সময় তার বাম হাতের আঙুলে একটি সাপে কামড় দেয়। এতে কিছুটা অসুস্থ হয়ে পড়লেও সাপের কামড়ের বিষয়টি অন্য কাউকে জানাননি তিনি। বিকেলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে রাতে তার মৃত্যু হয়।

জব্বারের ভাগ্নে মো. কাবিল গাজী বলেন, আমার মামাকে সাপে কামড় দিয়েছে সকাল ১০টার দিকে। বিকেলে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। ডাক্তারের কাছে প্রথমে সাপে কামড়ের কথা বলেননি তারা। চিকিৎসায় বিলম্ব ও ভুল চিকিৎসার কারণে আমার মামার মৃত্যু হয়েছে।

খামারের মালিক রাজ্জাক বিশ্বাসের ভাই হিরণ বিশ্বাস বলেন, বিকেলে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন জব্বার। জানতে চাইলে বুকে ব্যথা করছে বলে জানান তিনি। হাসপাতালে নেয়ার পর ডাক্তারকেও সেটা বলেছি। কিন্তু এর এক ঘণ্টা পর হাতে সাপে কামড় দিয়েছে বলে জানান জব্বার। পরে ডাক্তারকে বিষয়টি জানানো হয়।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলেন, রোগীকে হাসপাতাল এনে ভুল তথ্য দেওয়া হয়েছে। আমাদের কাছে বলা হয়েছে বুকে ব্যথা করছে ও গলা কিছু আটকে যাচ্ছে এমন মনে হচ্ছে। রোগীকে সেই অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এর এক ঘণ্টা পর বলা হয়েছে রোগীকে সাপে কামড়েছে। তখন রোগীর শেষ অবস্থা।

পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, মৃতের স্বজনদের পক্ষ থেকে এখনো কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র : ডেইলি বাংলাদেশ

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles