-7.8 C
Toronto
মঙ্গলবার, জানুয়ারী ৩১, ২০২৩

ব্যয় পর্যালোচনায় নারীদের বিবেচনায় রাখার আহ্বান

ব্যয় পর্যালোচনায় নারীদের বিবেচনায় রাখার আহ্বান - the Bengali Times
অর্থমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড

আসন্ন ফেডারেল ব্যয় পর্যালোচনার উদ্দেশ্য সামাজিক কর্মসূচি কাটছাট করা নয় বলে দাবি করেছে লিবারেল সরকার। ব্যয় পর্যালোচনাটি যাতে নারী ও প্রান্তিক মানুষদের বিবেচনায় রেখে করা হয় সেটা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন লিঙ্গ সমতার পক্ষে সোচ্চার ব্যক্তিরা।

ফেডারেল সরকার গত মাসের গোড়ার দিকে ঘোষিত বাজেটে এর কর্মসূচি ও নীতিগুলোয় ব্যয় পর্যালোচনা শুরু করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এই পর্যালোচনার উদ্দেশ্য আগামী তিন বছরে ৬০০ কোটি ডলার এবং ২০২৬ সাল নাগাদ বার্ষিক ৩০০ কোটি ডলার সাশ্রয় করা।

- Advertisement -

অর্থমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ডের কার্যালয়ের মুখপাত্র জেসিকা এরিটো বলেছেন, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে পর্যালোচনার মানদ-গুলো নির্ধারণ করা হবে। যদি বিদ্যমান সামাজিক কর্মসূচি কাটছাঁটের কোনো ইচ্ছা সরকারের নেই।

কানাডিয়ান সেন্টার ফর পলিসি অল্টারনেটিভের জ্যেষ্ঠ অর্থনীতিবিদ ক্যাথেরিন স্কট বলেন, কর্মসূচিগুলো পরিশীলত করা ও এর ফলাফলে উন্নতি আনার লক্ষ্যে সরকারের এই ব্যয় পর্যালোচনার তাৎপর্য রয়েছে। ঘাটতি কমিয়ে আনতে জঁ শেরটিয়েন নেতৃত্বাধীন লিবারেল সরকার ১৯৯৪ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত ব্যয় পর্যালোচনা করেছিল। এর ফলে সামাজিক কর্মসূচির ব্যয় কমে এসেছিল এবং তা প্রদেশ ও অঞ্চলগুলোয় স্থানান্তরিত হয়েছিল। কানাডিয়ান ফেমিনিস্ট অ্যালায়েন্স ফর ইন্টারন্যাশনাল অ্যাকশনের তথ্য অনুযায়ী, ব্যয় হ্রাসে ক্ষতির শিকার হয়েছিলেন নারীরা বিশেষ করে ঝুঁকিতে থাকা নারীরা। স্কট বলেন, তাদেরকে এর মূল্য দিতে হয়েছিল।

১৯৯০ সালের মন্দায় নারীরা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় সরকারের রাজস্ব ভিত্তি হ্রাস পেয়েছিল। সেই সঙ্গে সরকারি সেবাও কমে গিয়েছিল। পরিবারের আয় কমে যাওয়ায় পরিবারের কাজও কমে গিয়েছিল এবং বিনা পারিশ্রমিকে নারীদের তা কাধে তুলে নিতে হয়েছিল। তরুণ ও বৃদ্বদের দেখভাল করার পাশাপাশি অসুস্থ্য ও অক্ষম ব্যক্তিদেদের দেখাশোনার কাজ বিনা পারিশ্রমিকে তাদের ওপর এসে পড়েছিল।

স্টিফেন হারপারের কনজার্ভেটিভ সরকারের সময় ব্যয় পর্যালোচনার কথাও মনে করিয়ে দিচ্ছে কার্লটন ইউনিভার্সিটির সরকারি নীতি বিষয়ের অধ্যাপক রবার্ট শেফার্ডকে। সরকারি পরিষেবার ২৬ হাজার কর্মীকে বাদ দেওয়া হয়েছিল সে সময়।

২০২২-২৩ অর্থবছরে কানাডার ঘাটতি ৫ হাজার ২৮০ কোটি ডলারে দাঁড়াতে পারে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। ২০২১-২২ অর্থবছরে ঘাটতি ছিল যেখানে ১১ হাজার ৩৮০ কোটি ডলার।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles