15.4 C
Toronto
শনিবার, আগস্ট ১৩, ২০২২

হার দিয়ে বছর শুরু রিয়াল মাদ্রিদের

- Advertisement -
ছবি সংগৃহীত

টানা পনেরো ম্যাচে অপরাজিত থাকার পর অবশেষে হারের মুখ দেখল রিয়াল মাদ্রিদ। নতুন বছরের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই রোববার (২ ডিসেম্বর) গেটাফের বিপক্ষে লস ব্লাঙ্কোসরা হেরেছে ১-০ ব্যবধানে।

করোনার থাবায় জেরবার রিয়াল মাদ্রিদ। তরুণ ভিনিসিয়াস জুনিয়র ছাড়াও এদিন একাদশের বাইরে ছিলেন দুই মিডফিল্ডার এডুয়ার্ডো কামাভিঙ্গা ও ফেডরিক ভালভার্দে। তবে করোনা জয় করে দলের সঙ্গে ফিরেছেন গোলরক্ষক থিবো কর্তোয়া, লুকা মদ্রিচসহ আরও বেশ কয়েকজন।

আক্রমণভাগের সেরা তারকাদের নিয়ে খেলতে নামা কার্লো আনচেলত্তির শিষ্যরা যদিও ম্যাচের শুরু থেকেই স্বাগতিক গেটাফের ওপর বেশ চাপ বাড়িয়েছিলেন। তবে প্রথমার্ধেই এনেস উনালের গোলে এগিয়ে যায় গেটাফে। শেষ পর্যন্ত তার গোলেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা।

যদিও এ ম্যাচে ভাগ্যও সহায় ছিল না লস ব্লাঙ্কোসদের। ম্যাচের ১৮তম মিনিটে লুকা মদ্রিচের গোলে এগিয়ে যাওয়ার দারুণ সুযোগ পেয়েছিল রিয়াল। কিন্তু তার জোরালো শর্ট ক্রসবারে আটকে যায়। এরপর টনি ক্রুসও বেশ কয়েকটি সুযোগ মিস করেন।

বছরের প্রথম ম্যাচে হারের পরও ২০ ম্যাচে ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগার পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষেই রয়েছে কার্লো আনচেলত্তির দল।

গত এপ্রিলে গেটাফের মাঠ থেকে গোলশূন্য ড্র করে ফিরেছিল রিয়াল। এবার সেটাও পারল না তারা। ২০১২ সালের পর এই প্রথম রিয়াল মাদ্রিদকে হারাতে পারল অপেক্ষাকৃত দুর্বল দল গেটাফে। লিগে ছয় মুখোমুখি লড়াইয়ের পর রিয়ালের জালে বল পাঠাতে পারল তারা।

করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ইউরোপিয়ান ফুটবল লিগগুলো। শুধু লিগগুলোই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে না, তার সাথে ক্ষতির মুখে পড়েছে ক্লাবের খেলোয়াড়েরাও। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের পর এবার স্প্যানিশ লিগেও দেখা দিয়েছে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব। চলতি মাসে স্পেনের তিন শীর্ষ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা এবং অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের অন্তত ২৩ জন খেলোয়াড়ের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। এদের অনেকের শরীরেই ওমিক্রনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles