কোনও ছবি নয়, ব্যস, ঠিক আছে: আরাধ্য
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
সম্প্রতি কানে পৌঁছনোর সময় বিমানবন্দরে ঐশ্বরিয়া ও আরাধ্যর ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। এই ছবি সম্পর্কে মজার গল্প শুনিয়েছেন ঐশ্বরিয়া। তিনি বলেন, কয়েটা ছবিতে ওকে হাত নাড়তে দেখা যাচ্ছে। আমি ওকে জিজ্ঞেস করলাম, তুমি কী করছ। ও বলল, আমি ওদের বলছিলাম যে, কোনও ছবি নয়, ব্যস, ঠিক আছে। কান চলচিত্র উত্সবে মায়ের সঙ্গে এসেছে পাঁচ বছরের আরাধ্য। কানে একটি বিশেষ পণ্যের ব্র্যান্ড আম্বাসাডর হিসেবে রেড কার্পেটে হেঁটেছেন রাই-সুন্দরী। ঐশ্বরিয়া বলেন, আরাধ্য আমাদের বাড়ি, বিমানবন্দর সর্বত্রই ফটোগ্রাফারদের দেখতে দেখতেই বড় হচ্ছে। লোকজন সেলফি তোলার অনুরোধ নিয়ে আসেন। কখনও কখনও  কোনও ফটোগ্রাফার ছবি তুলতে এলে ও আমায় বলে, মাম্মা, আমি নয়, না? তারপর সরে দাঁড়ায়। অর্থাৎ ও বুঝে গিয়েছে। ব্যাপারটা খুব ভালো লাগে। আমি বুঝতে পারি, যখন ব্যস্ত থাকি, তখন ও ছবির জন্য পোজ দেয়।

অভিষেক ঘরণী বলেন, ও আমার সঙ্গে ঘুরছে। অনেক লোকজনের সঙ্গে ওর দেখা হচ্ছে। আমাদের জগতটাকেই ও দেখছে। তাই আমাকে ওর পাশে বসে বলে দিতে হয় না, ওর মা কী করে। যা ও দেখছে, তার সঙ্গেই ও বেড়ে উঠছে। এখন তো সংবাদমাধ্যমের কাছেও অনেকটা স্বচ্ছন্দ হয়ে উঠেছে আরাধ্য। অমিতাভ বচ্চন ও জয়া বচ্চনের পুত্রবধূ আরও বলেন, সিনেমা তারকাদের পরিবারে ওর জন্ম। তাই ফটোগ্রাফাররা ছবি তুলবে, এ রকম কিছু জিনিস ও খুব ভালোমতোই জানে। ঐশ্বরিয়া জানান, আরাধ্য নিজের মতো বড়ো হবে। জীবনে কী করবে তা ও নিজেই ঠিক করবে। বাবা-মা, দাদা-দাদী- পরিবারের সবাই বিনোদন জগতের তারকা। এমন একটা পরিবারের মেয়ে হয়েও আরাধ্য কিন্তু আর পাঁচটা বাচ্চার মতোই বড় হচ্ছে। ওভাবেই থাকতে চায়। এমনটাই জানালেন আরাধ্যর মা বলিউড অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন।

এবেলা পত্রিকা সূত্রে জানা যায় কান থেকে একটি সাক্ষাৎকারে ঐশ্বরিয়া বলেছেন, এখনও পর্যন্ত আরাধ্য একেবারে স্বাভাবিকভাবেই বড় হচ্ছে। এমন নয় যে, আমরা ওর কাছে বসে আমাদের সিনেমা দেখাই। এটাও বলব না যে, এ সবের কিছুই ও জানে না। ও খুব ভালো করেই জানে, আমরা কী করি। ও শহরের সর্বত্র আমাদের পোস্টার দেখতে পায়। ও জানে আমরা কে?

 

২২ মে, ২০১৭ ১৪:১৬:৪৮