সালমান আইএস-এর হয়ে কাজ করে!
দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক
অ+ অ-প্রিন্ট
সালমান খানের উদ্দেশে আবারও বিস্ফোরক মন্তব্য করল বিগ বস ১০ এর প্রতিযোগী স্বামী ওম। একটি টাস্কের সময় বাণী ও রোহন মেহেরার দিকে সে প্রস্রাব ছুঁড়ে মারে স্বামী ওম। তারপরই তাঁকে ঘর থেকে বের করে দেওয়া হয়। তখন থেকেই সে একের পর এক কুমন্তব্য ছুঁড়তে থাকে সলমনের দিকে। এবার যা বললেন তা আরও বিস্ফোরক।

স্বামী ওম দাবী করেছে যে বিগ বসের ঘরে থাকাকালীন অবস্থায় সে নাকি সলমনকে চড় পর্যন্ত মেরেছে। সে একটি সাক্ষাৎকারে বলে, মদ্যপ দলমন সিগারেটের ধোঁইয়া আমার মুখের সামনে ছাড়ে। তাই আমি ওকে জোড়ে একটা চড় মারি। ওম দাবী করে যে ঘটনাটি নাকি বিগ বসের ঘরের স্মোকিং রুমে ঘটে, যেখানে কোনও ক্যামেরা ছিল না।তখন সে নাকি সালমানকে ওই রুম থেকে টেনে বের করার চেষ্টাও করে। এছাড়া ওই এপিসোডটি এখনও দেখানো হয়নি। তাঁর মন্তব্যকে আরও জোরালো করতে ওম বলে, “আমার মন্তব্য ওরাকেউ এখনও অস্বীকার করেনি। আমি যদি সালমানকে চড় মেরে থাকি এবং এই কথা শুনেও সে যদি চুপ করে থাকে তাহলে প্রমাণ হয় যে আমার কথাই সত্যি”।

শুধু এই বলেই চুপ করে যায়নি স্বামী ওম। এরপর টেনে এনেছে সলমনের সঙ্গে আইএস জঙ্গি সংগঠনের যোগসূত্র। ওম বলে, আমায় বলেছিল দাউদ ইব্রাহিম, আবু সালেম, হাফিজ সাঈদরা আমার বন্ধু। সলমন আমায় বলেছিল যে ও আইএস এর হয়েও কাজ করে। তাছাড়াও বলেছিল যে সলমন, শাহ রুখ খন ও আমির খান দেশকে একটি মুসলমান রাষ্ট্রে পরিণত করবে। ওরা কোনও হিন্দু অভিনেতাকে বলিউডে টিকে থাকতে দেবে না। স্বামী ওমের একের পর এক কুমন্তব্যের পরও মুখ খোলেননি সলমন খান। হয়তো পাগলের প্রলাপ ভেবে এড়িয়ে গেছে। কিন্তু ধর্ম এবং আইএস-এর সঙ্গে তাঁর যোগসূত্রের মন্তব্যে সালমানের প্রতিক্রিইয়া কি হবে এখন তাই দেখার। সূত্র: কলকাতা২৪

 

১০ জানুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২১:০০