19.3 C
Toronto
সোমবার, জুন ২৭, ২০২২

সরকারের বিদায় ঘণ্টা বেজে গেছে : মির্জা ফখরুল

- Advertisement -
সরকারের বিদায় ঘণ্টা বেজে গেছে : মির্জা ফখরুল - The Bengali Times
শুক্রবার গাজীপুরে সমাবেশে বক্তব্য দেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেছেন, ‘আসুন আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে উত্তাল আন্দোলনের মাধ্যমে বর্তমান দানবীয় সরকারকে উৎখাত করি। একমাত্র আন্দোলনের মাধ্যমেই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার সম্ভব। এ সরকারের বিদায়ের ঘণ্টা বেজে গেছে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে আজ শুক্রবার বিকেলে গাজীপুর জেলা ও মহানগর বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা শহরের শহীদ বরকত স্টেডিয়ামে এ সমাবেশ হয়।

সরকারের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, সাহস থাকলে অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন দিন। তখন দেখা যাবে জনগণ কাদের চায়। গণতন্ত্র রক্ষা ও ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশে তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ এ দেশের প্রভু নয়। দেশের মালিক জনগণ। জনগণের ট্যাক্সের টাকায় দেশ চলে। আপনারা সংবিধান মেনে চলুন, দেশ রক্ষায় কাজ করুন, জনগণের কথা ভাবুন। জনগণ আজ এ সরকারের হাত থেকে মুক্তি চায়। আপনারা জনগণের পক্ষে থাকুন।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাবেক এমপি ফজলুল হক মিলন। মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব সোহরাব উদ্দিন এবং জেলা বিএনপির সদস্য সচিব কাজী ছাইয়েদুল আলম বাবুলের যৌথ সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক সালাহউদ্দিন সরকার, মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সাবেক এমপি হাসান উদ্দিন সরকার প্রমুখ।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের জন্য সংলাপ শুরু করেছেন। আমরা হুদা মার্কা নির্বাচন কমিশন চাই না। নির্বাচন কমিশন গঠনের আগে বর্তমান সরকারকে অবশ্যই পদত্যাগ করতে হবে। নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে অবাধ নির্বাচন দিতে হবে।’

তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ নেতারা বলেন আমরা নাকি নির্বাচনে আসতে ভয় পাই। ভয় তো আপনারা পান। সুষ্ঠু নির্বাচন হলেই প্রমাণিত হবে কে কাকে ভয় পায়। জনগণ স্বৈরাচারী একনায়কতন্ত্রমার্কা সরকারের পরিবর্তন চায়।

সমাবেশ থেকে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে অনুমতি দেওয়ার দাবি জানান তিনি।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles