21.7 C
Toronto
মঙ্গলবার, আগস্ট ৯, ২০২২

নাহিদ এন্টারপ্রাইজের বিরুদ্ধে ২৭৫ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির মামলা

- Advertisement -

বন্ড সুবিধার অপব্যবহার করে পণ্য ক্রয়-বিক্রয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজধানীর লালবাগের নাহিদ এন্টারপ্রাইজের বিরুদ্ধে ২৭৫ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির মামলা করেছে ভ্যাট গোয়েন্দা অধিদপ্তর।

প্রতিষ্ঠানটির ব্যবসায়িক কার্যক্রম তদন্ত করে বন্ড সুবিধার অপব্যবহারের মাধ্যমে খোলা বাজারে পণ্য বিক্রি এবং এর মাধ্যমে ২৭৫ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি উদঘাটন করা হয় বলে জানায় ভ্যাট গোয়েন্দা। এর পরিপ্রেক্ষিতে এরই মধ্যে ভ্যাট ফাঁকির মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং চোরাচালান ও শুল্ক ফাঁকি সংশ্লিষ্ট মানি লন্ডারিং অপরাধ সংঘটিত হয়েছে কি না, সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে ভ্যাট গোয়েন্দার মহাপরিচালক ড. মইনুল খান জানান, অনুসন্ধানে দেখা যায়, ২০১৬ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মে পর্যন্ত পাঁচ বছরে প্রতিষ্ঠানটি দাখিলপত্রে বিক্রয়মূল্য কম দেখিয়েছে। প্রকৃত বিক্রয়মূল্য কম দেখানোর কারণে ১৫৭ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি উদঘাটন হয়েছে, যার ওপর মাস ভিত্তিক ২ শতাংশ হারে ১১৮ কোটি সুদসহ মোট ভ্যাট ফাঁকির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৭৫ কোটি টাকা।

ভ্যাট গোয়েন্দার মহাপরিচালক আরও জানান, অনুসন্ধানে দেখা যায়, নাহিদ এন্টারপ্রাইজ অন্যান্য বন্ডেড প্রতিষ্ঠান থেকেও বন্ড সুবিধার অপব্যবহারের মাধ্যমে পণ্য ক্রয়-বিক্রয়ের সঙ্গে জড়িত। এর ফলে চোরাচালান ও শুল্ক ফাঁকি সংশ্লিষ্ট মানি লন্ডারিং অপরাধ সংঘটিত হয়েছে কি না, সেটি খতিয়ে দেখতে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরকে অনুরোধ করা হয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles