16.5 C
Toronto
শুক্রবার, অক্টোবর ৭, ২০২২

সংসদে চুন্নু-হারুনের বাহাস

- Advertisement -
সংসদে চুন্নু-হারুনের বাহাস - the Bengali Times
ছবি সংগ্রহ

বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদ ও জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু, ফাইল ছবি
বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদ ও জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু, ফাইল ছবি

‘টেরিটোরিয়াল ওয়াটার অ্যান্ড মেরিটাইম বিল-২০২১’-এর জনমত যাচাই-বাছাইয়ের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদ বলেন, ‘সীমান্ত হত্যা আজকে নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। ভারতের সঙ্গে আমাদের এত বন্ধুত্বের সম্পর্ক, স্বামী-স্ত্রী, রক্তের সম্পর্ক। তাহলে কেন প্রতিনিয়ত সীমান্ত হত্যা হচ্ছে?’

পরে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু। তিনি বলেন, ‘একজন সংসদ সদস্য বলেছেন ভারতের সঙ্গে আমাদের কীসের রক্তের সম্পর্ক? আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা। সে সময় প্রশিক্ষণের জন্য ভারতে গিয়েছিলাম। যারা মুক্তিযুদ্ধ দেখেনি, তাদের দেশটি সম্পর্কে ধারণা নেই। ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চে পাকিস্তানি বাহিনীর বর্বর হামলার পরে আমরা ভারতে যাই। ভারত প্রশিক্ষণ ও অস্ত্র না দিলে কীভাবে আমরা যুদ্ধ করতাম। তাই দেশটির সঙ্গে আমাদের রক্তের সম্পর্ক কথাটি ঠিক।’

রোববার জাতীয় সংসদের বৈঠকে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের সঙ্গে এই বাহাসে জড়ান জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু। মুজিবুল হক চুন্নু এও বলেন, একাত্তর সালে পাকিস্তানের চেহারা যারা দেখেননি, তারাই পাকিস্তানের প্রেমে পড়েন। যারা পাকিস্তানের প্রেমের কথা বলেন, তাদের প্রতি ঘৃণা হয়।

তিনি বলেন, ‘রক্ত মানে শুধু পৈতৃকভাবে জন্ম নেওয়া নয়। যে আমার জন্য রক্ত দেয়, আমিও তার জন্য রক্ত দিই। এটাই রক্তের সম্পর্ক।’

চুন্নু বলেন, সীমান্তে ভারত অনেক সময় খুব ছোটখাটো কারণে বাংলাদেশের মানুষের ওপর গুলি চালিয়ে হত্যা করে। এটার প্রতিবাদ বাংলাদেশ করে। মিয়ানমারের সঙ্গে ভারত রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সমর্থন করে না এবং কোনো পদক্ষেপ নেয় না- সেটারও সমালোচনা করি। কিন্তু একাত্তর সালে পাকিস্তানের চেহারা যারা দেখেননি, তারাই পাকিস্তানের প্রেমে পড়েন। যারা পাকিস্তানের প্রেমের কথা বলেন, তাদের প্রতি ঘৃণা হয়।

পরে বিএনপির হারুনুর রশীদ তার সংশোধনী বক্তব্যে বলেন, ‘আমি বলেছি স্বামী-স্ত্রী, রক্তের সম্পর্ক। এখানে পাকিস্তানপ্রীতির কথা কোথা হতে এলো? ভারত কর্তৃক আমাদের সীমান্তে মানুষ হত্যা হচ্ছে। কিন্তু সেটার বিচার হচ্ছে না।’

তিনি বলেন, ‘সংসদে বিরোধী দলের সংসদ সদস্য বলেছিলেন, যেভাবে আমরা সরকারের পক্ষে কথা বলছি, আমাদের দালাল বলা হয়। এভাবে কথা বলা হলে মানুষের ধারণা হবে, বাংলাদেশে এরা সব ভারতের দালাল।’

Related Articles

Latest Articles