26.1 C
Toronto
শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪

বয়স থামিয়ে দিতে চাইলে যা করবেন

বয়স থামিয়ে দিতে চাইলে যা করবেন
ছবি সংগৃহীত

বয়স কি আসলেই থামিয়ে দেওয়া যায়? যদিও তা সম্ভব নয় কারণ সময়ের কাঁটা ঘুরতেই থাকে বিরতিহীন। কিন্তু বয়সের কারণে চেহারায় যে ছাপ পড়ে তা চাইলেই রোধ করা যায়। অনেকের আবার বয়সের আগেই বয়সের ছাপ পড়ে চেহারায়। এ ধরনের সমস্যা রোধ করতে হলে আপনাকেই সচেতন হতে হবে। সেজন্য রয়েছে কিছু ঘরোয়া উপায়। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

সঠিক সময়ে খাবার খান

- Advertisement -

সঠিক সময়ে খাবার খাওয়ার গুরুত্ব আমরা বেশিরভাগই বুঝতে পারি না। খাবারের সময় ঠিক রাখলে এবং পর্যাপ্ত পুষ্টিকর খাবার খেলে তা আপনাকে নানাভাবে উপকার করবে। বিশেষ করে স্বাস্থ্যকর খাবার সঠিক সময়ে খেলে তা চেহারায় ক্লান্তি ও বয়সের ছাপ পড়তে দেবে না। আপনি সতেজ থাকলে তার প্রভাব পড়বে চেহারায়ও। তাই প্রতিদিনের খাবারে অল্প মসলাদার খাবার এবং প্রচুর শাক-সবজি ও ফলমূল যোগ করুন। সেইসঙ্গে রুটিন মেনে প্রতিদিন একই সময়ে খাওয়ার অভ্যাস করুন।

পর্যাপ্ত পানি পান করুন

পর্যাপ্ত পানি পান না করার বদ অভ্যাস আছে আমাদের অনেকেরই। এই অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে। সুস্থ ও সতেজ থাকার জন্য পর্যাপ্ত পানি পানের বিকল্প নেই। আমাদের শরীরের ভেতরের দূষিত পদার্থ দূর করতে এবং শরীরে পানির ঘাটতি পূরণ করতে কাজ করে পানি। পর্যাপ্ত পানি পান না করলে তার প্রভাব পড়ে আমাদের ত্বকেরও। তখন বয়সের আগেই দেখতে বয়স্ক লাগে। তাই পানি পানের দিকে খেয়াল রাখা জরুরি।

ঘুমের সময় ঠিক রাখুন

ঘুমের সময় ঘুমের অভ্যাস করুন। একেক দিন একেক সময়ে ঘুমাবেন না। এতে শরীরের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে। প্রতিদিন একই সময়ে ঘুমাতে যান এবং একই সময়ে ঘুম থেকে উঠুন। রাতের বেলা আগেভাগে বিছানায় যাবেন এবং খুব ভোরে ঘুম থেকে উঠবেন। এতে অনেক উপকার পাবেন। পাশাপাশি আপনার চেহারাও হবে ঝলমলে। কারণ পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব আমাদের স্বাস্থ্য ও ত্বকের ক্ষতি করতে পারে।

বর্তমান বিশ্বে নানা ধরনের আকর্ষণীয় গ্যাজেট আমাদের নিত্যসঙ্গী হয়ে দাঁড়িয়েছে। চাইলেও সেগুলো এড়িয়ে চলার উপায় নেই। কিন্তু আপনার সুস্বাস্থ্য ও সুন্দর ত্বকের জন্য সচেতন হতে হবে আপনাকেই। দীর্ঘ সময় স্ক্রিনের সামনে কাটালে তা আমাদের মস্তিষ্ক, চোখ ও ত্বকের ক্ষতির কারণ হতে পারে। স্ক্রিন থেকে নির্গত নীলচে আলো আপনার ত্বকে বলিরেখার কারণ হতে পারে। তাই এ ধরনের সমস্যা এড়াতে চাইলে আপনাকে স্ক্রিনটাইম কমিয়ে আনতে হবে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles