27.7 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জুন ২০, ২০২৪

সমালোচনা থেকে বাঁচতেই বিচ্ছেদের নাটক করেন হার্দিক!

সমালোচনা থেকে বাঁচতেই বিচ্ছেদের নাটক করেন হার্দিক!
হার্দিক পান্ডিয়া ও নাতাশা স্টানকোভিচ

সপ্তাহখানেক আগে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে খবর চাউর হয়, হার্দিক পান্ডিয়া আর নাতাশা স্টানকোভিচের সংসারে নাকি আগুন জ্বলছে! যেকোনো মুহূর্তে আসতে পারে বিচ্ছেদের ঘোষণা। বিচ্ছেদ হলে হার্দিকের সম্পত্তির ৭০ ভাগ পেয়ে যেতে পারেন নাতাশা, এই গুজব নিয়েও আলোচনা চলে বিস্তর। কিন্তু সপ্তাহ ঘুরতেই ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে গেল প্রেক্ষাপট!

বিচ্ছেদ তো দূরের কথা, হার্দিক-নাতাশা দম্পতি নাকি রীতিমত প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন। নাতাশার দেওয়া এক ইনস্টাগ্রাম স্টোরির সূত্র ধরে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস দিয়েছে এই খবর। নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে পান্ডা সোয়েটার পরা কুকুরের একটি ছবি শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, ‘বেবি রোভার Pand(Y)a।’

- Advertisement -

এই স্টোরি দেখেই নেটিজেনরা ধরে নিয়েছেন আসলে হার্দিক-নাতাশার সম্পর্ক ঠিকই ছিল। শুধু আইপিএলে হার্দিকের পারফরম্যান্সের কারণে সমালোচনা থেকে বাঁচতেই বিচ্ছেদের ধুয়া তুলেছিলেন তারা।

তাদের দাবি, বিবাহবিচ্ছেদের গুজব নাতাশা ও হার্দিকের পাবলিসিটি স্টান্ট ছাড়া আর কিছুই নয়। এক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘মনে তো হচ্ছে হার্দিক-নাতাশা মানুষের সহানুভূতির জন্য পুরোটা নাটক করেছে’, অপর একজন লিখেছেন, ‘আইপিএলের ব্যর্থতা ঢাকতে পুরোটাই নাটক করছিল স্বামী-স্ত্রী। এই খেলাটা অন্তত পান্ডিয়া ভালো খেলেছে।’

হার্দিক-নাতাশার বিবাহবিচ্ছেদের গুজব শুরুও হয়েছিল ইনস্টাগ্রাম থেকেই। আইপিএল শেষ হতেই ইনস্টাগ্রাম বায়ো থেকে পান্ডিয়া পদবি সরিয়ে ফেলেছিলেন নাতাশা। এরপর বিয়ের ছবিও অন্তর্জাল থেকে সরিয়ে নেন। এতে হার্দিক-নাতাশা দম্পতির বিচ্ছেদের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের শুরুর দিকে সার্বিয়ান মডেল-অভিনেত্রী নাতাশার সঙ্গে বাগদান হয় হার্দিকের। সে বছরের ৩০ জুলাই ছেলে অগস্ত্যর জন্ম দেন নাতাশা। এরপর গত বছর ভালোবাসা দিবসে রাজস্থানে ধুমধাম করে সাত পাকে বাঁধা পড়েন হার্দিক-নাতাশা।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles